punjab dsp shoots himself

ফারিদকোট (পঞ্জাব): ছাত্র বিক্ষোভ চলাকালীন নিজেকে গুলি করলেন পঞ্জাবের এক ডিএসপি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। ছাত্রদের অপমান থেকে আত্মহত্যা নাকি হাত ফস্কে গুলি বেরিয়েছে তাঁর সে ব্যাপারেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে ফরিদকোটে পঞ্জাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ছাত্রবিক্ষোভ চলছিল। গত সপ্তাহে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে দু’জন ছাত্রকে হেনস্থা করা হয়েছিল। তার প্রতিবাদেই এদিন সকাল থেকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে পঞ্জাব স্টুডেন্ট ইউনিয়ন (পিএসইউ) নামক একটি ছাত্র সংগঠন। ছাত্ররা যখন ক্যাম্পাসে স্লোগান দিচ্ছিল, তখনই তাদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে স্থানীয় এক নেতা।

এরই মধ্যে বিক্ষোভকারীদের শান্ত করতে আসরে নামেন ফরিদকোটের ডিএসপি হরজিন্দর সিংহ সান্ধু। তবে বিক্ষোভকারীরা শান্ত না হয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে শুরু করে। অভিযোগ, এরপরেই নিজের মাথায় সার্ভিস রিভলভার থেকে গুলি চালিয়ে দেন তিনি। তাঁর বন্দুকের গুলি তাঁর মাথা ভেদ করে লাগে এক সহকর্মীরও লাগে। সেই পুলিশকর্মী এখন হাসপাতালে ভর্তি।

প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কী কারণে নিজেকে গুলি করলেন ডিএসপি? এটা কী হাত ফস্কে গুলি না কি ছাত্রদের অপমানে আত্মহত্যা?

ভাটিন্ডার আইজি মনবিন্দর সিংহ চিনা বলেছেন, “সম্ভবত ছাত্রদের দিক থেকে আসা অভিযোগের পর অভিমানে নিজেকে গুলি করেছেন ডিএসপি। তিনি সৎ এবং পরিশ্রমী পুলিশ অফিসার ছিলেন। অনেক মামলাই নিজের হাতে সমাধান করেছেন। তাঁর এই ঘটনার পরে পুরো পুলিশমহল শোকস্তব্ধ।”

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন