earthquake in northbengal
ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল। ছবি: ইউএসজিএস

ওয়েবডেস্ক: ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল পশ্চিমবঙ্গের বিস্তীর্ণ অংশ। তবে কম্পন বেশিক্ষণ স্থায়ী না হওয়ায় বিশেষ ক্ষয়ক্ষতি হয়নি, যদিও সিঁড়ি দিয়ে তাড়াহুড়ো করে নামতে গিয়ে শিলিগুড়িতে মারা গিয়েছেন এক যুবক। কম্পনের কেন্দ্রস্থল বাংলা-অসম সীমান্ত হওয়ায় উত্তরবঙ্গ এবং উত্তরপূর্বে এই কম্পনের প্রভাব বেশি ছিল।

বুধবার সকাল ১০:২০ নাগাদ হঠাৎ দুলে ওঠে রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকা। কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে এই কম্পনের দুলুনি অনেকটাই বেশি ছিল। কম্পনের কিছুটা প্রভাব কলকাতাতেও পড়ে। শহরের অনেক বাসিন্দাই কম্পন টের পান।

আরও পড়ুন ভূমিকম্পে শিলিগুড়িতে মৃত্যু যুবকের

মার্কিন জিওলজিক্যাল সার্ভের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই কম্পনের উৎসস্থল ছিল বাংলা-অসম সীমান্তে কোকরাঝাড় জেলার শপথগ্রাম। ৫.৬ তীব্রতার এই কম্পন হয়েছে মাটি থেকে ১০ কিমি গভীরে। অসমের গুয়াহাটিতেও এই কম্পনের ভালো প্রভাব পড়েছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার বাসিন্দা শুভঙ্কর দাস। পাশাপাশি বিহার, বাংলাদেশেও এই কম্পন অনুভূত হয়।

কম্পনের ফলে স্বাভাবিক  ভাবেই উত্তরবঙ্গের মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। আফটারশক আসতে পারে, এই চিন্তা করছেন সাধারণ মানুষ। তবে এই কম্পনের আফটারশক হতে পারে, এমন আশঙ্কা করছেন না বিশেষজ্ঞরা।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন