‘মোদীজি কি সেনা’ মন্তব্যের জন্য যোগীকে নোটিশ কমিশনের

0
Yogi Adityanath
যোগী আদিত্যনাথ। ফাইল ছবি।

ওয়েবডেস্ক:  একটি নির্বাচনী জনসভায় ‘মোদীজি কি সেনা’ মন্তব্য করার জন্য উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে নোটিশ পাঠাল নির্বাচন কমিশন। ৫ এপ্রিলের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে হবে যোগীকে।

এর আগে গত সোমবারই রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন অফিসার মুখ্যমন্ত্রীর ওই মন্তব্যের জন্য গাজিয়াবাদ জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছিলেন।

সন্ত্রাসবাদ ও সন্ত্রাসবাদীদের প্রতি কংগ্রেস যে নরম সেই অভিযোগ তুলে গত রবিবার গাজিয়াবাদ ও গ্রেটার নয়ডায় নির্বাচনী জনসভায় যোগী আদিত্যনাথ বলেন, “কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকার সন্ত্রাসবাদীদের বিরয়ানি খাওয়াত। আর মোদীজির সেনা তাদের রাস্তায় বুলেট আর বোমা বিছিয়ে দেয়… মাসুদ আজহারের নামের আগে ‘জি’ জুড়ে দিয়ে কংগ্রেস সন্ত্রাসবাদীদের উৎসাহ দেয়।” যোগী আদিত্যনাথের ভাষণের ভিডিও ক্লিপ থেকে এ কথা জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন ‘মোদীজি কি সেনা’, যোগীর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রাক্তন নৌ প্রধান চিঠি দিলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে

এর পরেই বিভিন্ন মহলে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। বিরোধী দলগুলি তো বটেই, ক্ষুব্ধ হয় সেনামহলও। বহু প্রাক্তন সেনা অফিসার যোগীর এই মন্তব্যে প্রকাশ্যেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন। প্রাক্তন নৌ প্রধান অ্যাডমিরাল এল রামদাস মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে চিঠি লিখে বলেন, “দেশের সশস্ত্র বাহিনী কোনো ব্যক্তিবিশেষ বা কোনো রাজনৈতিক দলের ব্যক্তিগত বাহিনী নয়। দেশের সেনাবাহিনী সম্পর্কে এ ধরনের মন্তব্য আদৌ মেনে নেওয়া যায় না।”

কংগ্রেস-সহ বিভিন্ন বিরোধী দল বলে, সেনাবাহিনী দেশের সশস্ত্র বাহিনী, ‘প্রচারমন্ত্রী’র ব্যক্তিগত সেনা নয়। কংগ্রেস যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগ দাবি করে।

শেষ পর্যন্ত যোগী আদিত্যনাথের কাছে নোটিশ পাঠাল নির্বাচন কমিশন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.