রায়ান অস্থি মজ্জা দিল জিনিয়াকে। রায়ানের বয়স আট মাস। বাড়ি পাকিস্তানে। জিনিয়া তার দিদি। বয়স আড়াই বছর।  বেঙ্গালুরুর চিকিৎসকরা সফল ভাবে রায়ানের অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপন করেছেন জিনিয়ার শরীরে।

কী হয়েছিল জিনিয়ার? চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন পাকিস্তানের শাহিয়ালের বাসিন্দা জিনিয়া বিরল রোগ হেমাফাগোসাইটিক লিম্ফোহিস্টিসাইটোসিস (এইচএলএইচ) রোগে ভুগছিল। যে রোগে অস্থি মজ্জা কিছু বিকৃত কোষ তৈরি করে, যেগুলো স্বাভাবিক কোষকে খেয়ে ফেলে। এর ফলে প্রবল জ্বর আসে লিভার এবং প্লিহা বেড়ে যায়। একমাত্র অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপণ করলেই এর থেকে মুক্তি মিলতে পারে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

নারায়ণা হেল্থ সিটি হাসপাতালের শিশু হেমটোলজি বিভাগের প্রধান ডাঃ সুনীল ভাট জানিয়েছেন,‘মেয়েটি বিরল রোগ এইচএলএইচ-এ ভুগছিল। আমরা পরীক্ষা থেকে দেখি তার ভাই রায়ানের সঙ্গে হিউম্যান লিউকোসাইট অ্যান্টিজেন মেলে।  তাই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আট মাসের রায়ানের থেকে এটি নেওয়া হবে।’

কয়েক সপ্তাহ অন্তর দু’বার রায়ানের থেকে অস্থি মজ্জা নেওয়া হয় চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। সরু একটি সূচের সাহায্যে ইনজেকশনের মাধ্যমে রায়ানের অস্থি থেকে মজ্জা নেওয়া হয়।

অক্টোবর মাস থেকে এই প্রতিস্থাপণের প্রক্রিয়া শুরু হয়। আপাতত জনিয়া সুস্থ ,খুব শীঘ্র সে পাকিস্তানে ফিরে যাবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের চিকিৎসকরা।    

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here