৪ জুলাই আস্থাভোটের মুখোমুখি মহারাষ্ট্রে শিন্ডে সরকার, প্রমাণ করতে হবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা

0

মুম্বই: আগামী ৩-৪ জুলাই একটি বিশেষ অধিবেশন বসছে মহারাষ্ট্র বিধানসভায়। ৪ জুলাই আস্থাভোটের মুখোমুখি হবে নবনির্বাচিত একনাথ শিন্ডে সরকার। বিধানসভার স্পিকার নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন দাখিল ২ জুলাই। পর দিনই অনুষ্ঠিত হবে স্পিকার নির্বাচন।

এর আগে বিধানসভার অধিবেশনটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ২ জুলাই। তবে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন শিন্ডে। রাজ্যপাল ভগৎ সিংহ কোশিয়ারি তাঁকে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে বলেন। তা ছাড়া, বিধানসভার নতুন স্পিকার নিয়োগের জন্যও নির্বাচনের প্রয়োজন।

এ ব্যাপারে একটি বিবৃতি জারি করেছে মহারাষ্ট্র বিধানসভা। সচিবালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, সমস্ত বিধায়ককে বিশেষ অধিবেশনে উপস্থিত থাকার জন্য আবেদন করা হয়েছে।

ইতিমধ্যেই শিন্ডে শিবির দাবি করেছে, অন্তত ৫০ জন শিবসেনা বিধায়কের সমর্থন রয়েছে তাদের সঙ্গে। তবে বিষয়টিকে এতটা হালকা ভাবে নিচ্ছে না শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেসের মহা বিকাশ আঘাডী জোট। শুক্রবারই জানা যায়, শিন্ডেকে সমর্থনকারী বিধায়কদের রাজ্য বিধানসভায় অংশ নেওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে তারা।

১৫ জন বিধায়কের বিধায়ক পদ খারিজের আবেদন জানিয়েছে উদ্ধব শিবির। সূত্রে খবর, আগামী ১১ জুলাই ওই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে রাজ্যপালের দেওয়া আস্থাভোটের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করেও সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল শিবসেনা। বুধবার টানটান সওয়াল-জবাবের পর সর্বোচ্চ আদালতে মান্যতা পায় রাজ্যপালের নির্দেশ। ‌মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেন উদ্ধব। বৃহস্পতিবার কুর্সিতে বসেন শিন্ডে।

আরও পড়তে পারেন:

‘প্রেমপত্র’ পেলেন শরদ পওয়ার, মহারাষ্ট্রে সরকার বদলের পরই নোটিশ

‘সারা দেশের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত’, সুপ্রিম কোর্টের ধমকের মুখে নূপুর শর্মা

দাম কমল ১৯ কেজির বাণিজ্যিক এলপিজি সিলিন্ডারের, কলকাতায় কত

ফের সুপ্রিম কোর্টে উদ্ধব শিবির, একনাথ অনুগামী বিধায়কদের বিধানসভায় আটকানোর আবেদন

কার কথায় মমতাতে সারদা দর্শন, ব্যাখ্যা দিলেন নির্মল মাজি

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন