ওয়েবডেস্ক: রাত পোহালেই সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ভোটগণনা। একে একে সামনে আসবে কোন কেন্দ্রে কে এগিয়ে, বুথ ফেরত সমীক্ষাগুলোর মতোই এগোচ্ছে কি না ভোটের ফল, ইত্যাদি। তবে চূড়ান্ত ফলাফল হাতে পেতে বিলম্ব ঘটতে পারে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

আগামী বৃহস্পতিবার দেশের ৫৪২টি লোকসভা কেন্দ্রের ভোটগণনা শুরু হবে সকাল ৮টায়। সারা দেশের প্রায় আট হাজার প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারণ হতে শুরু হয়ে যাবে তার পর থেকেই। নির্বাচন কমিশনের নিয়মানুযায়ী, পোস্টাল ব্যালট প্রথমে গোনা হবে তার পরই শুরু হবে ইভিএমের ভোটগণনা।

কিন্তু ইভিএম গণনাতেই শেষ হবে না পুরো প্রক্রিয়া। চলবে ভিভিপ্যাট (ভোটার ভেরিফায়েড পেপার অডিট ট্রেল) মিলিয়ে দেখার কাজও সারতে হবে। ফলে বৃহস্পতিবার দুপুরের মধ্যেই যেখানে পুরো চিত্র স্পষ্ট হয়ে যাওয়ার কথা, সেখানে সরকারি ভাবে বিজয়ী ঘোষণা সন্ধ্যে পার হয়ে যেতেও পারে। কোথাও কোথাও গরমিল ধরা পড়লে মধ্যরাত পার হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

এই প্রথমবার ভারতে ইভিএমের ভোটের সঙ্গে মিলিয়ে দেখা হবে ভিভিপ্যাটের স্লিপের সংখ্যা। প্রতিটা বিধানসভা থেকে পাঁচটি করে ভিভিপ্যাট মিলিয়ে দেখার কাজ করার কথা রয়েছে। সেই হিসাবে সারা দেশের ১০.৩ লক্ষ বুথের মধ্যে থেকে সব মিলিয়ে প্রায় ২০,৬০০ বুথের ইভিএম-ভিভিপ্যাট মিলিয়ে দেখা হবে।

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, গত ১১ এপ্রিল থেকে ১৯ মে পর্যন্ত সাত দফার ভোটে সারা দেশের ৯০.৯৯ কোটি ভোটারের মধ্যে ৬৭.১১ শতাংশ ভোটার মতদান করেছেন।

কমিশন জানিয়েছে, গণনার শেষ পর্বে ভিভিপ্যাট স্লিপ গুনে নেওয়ার পরই সেই সংখ্যা ইভিএমে পড়া ভোটের সঙ্গে মেলানো হবে। এই কাজ করতে কম পক্ষে চার-পাঁচ ঘণ্টা বাড়তি সময় লাগবে বলেই মনে করছেন কমিশনের আধিকারিকরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here