ভোপাল: এক মাসে ৩,৪১৯ কোটি টাকার বিদ্যুৎ খরচ হয়েছে! বিদ্যুতের এই বিল দেখে অসুস্থ হয়ে পড়লেন বাড়ির কর্তা। পরিবারের দাবি, এখন হাসপাতালে ভরতি হয়েছেন ওই ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে গোয়ালিওরে।

শহরের শিববিহার কলোনির বাসিন্দা প্রিয়ঙ্কা গুপ্তর বাড়িতে জুলাই মাসে বিদ্যুতের বিল পৌঁছোতেই কার্যত আকাশ থেকে পড়েন সব সদস্য। ৩,৪১৯ কোটি টাকার বিদ্যুৎ খরচ হয়েছে। ভুল দেখছেন কি না, সেটা বুঝতেই বার বার বিল পড়ে দেখেন পরিবারের সবাই।

তার পর থেকে প্রিয়ঙ্কার শ্বশুরমশাই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। প্রিয়ঙ্কার স্বামী সঞ্জীব তাঁর বাবার অসুস্থতার জন্য দায়ী করেছেন বিদ্যুৎ দফতরের ভুল বিলকে। এই খবর ছড়াতেই নড়েচড়ে বসে মধ্যপ্রদেশ মধ্য ক্ষেত্র বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি (এমপিএমকেভিভিসি)।

বিদ্যুৎ দফতর থেকে তড়িঘড়ি জানানো হয় মহা ভুল হয়ে গিয়েছে। কোনো কর্মীর ভুলেই এই কাণ্ড বলে দাবি তাঁদের। সঙ্গে সঙ্গে আবার একটি বিল তৈরি হয়। নতুন বিলে প্রিয়াঙ্কাদের বিদ্যুতের খরচ ১,৩০০ টাকা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বিদ্যুৎ পরিবহণ কর্তৃপক্ষের জেনারেল ম্যানেজার নিতিন মঙ্গলিক জানিয়েছেন, কোনো কর্মীর ভুলে এই কাণ্ড ঘটে গিয়েছে। এ জন্য তাঁরা দুঃখিত।

মধ্যপ্রদেশের বিদ্যুৎমন্ত্রী প্রদ্যুমান সিংহ তোমর জানান, যে কর্মী এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন তাঁকে চিহ্নিত করা হবে। নতুন বিল পেয়ে কিছুটা ধাতস্থ হয়েছে প্রিয়ঙ্কার পরিবার। তবে অসুস্থ বৃদ্ধকে নিয়ে চিন্তিত তাঁরা।

আরও পড়তে পারেন

ছয় মাসের মধ্যে ১৫ বছরের পুরনো গাড়ি বাতিল করতে হবে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে নির্দেশ পরিবেশ আদালতের

আগস্টে একান্ত বৈঠকে মুখোমুখি মমতা-মোদী?

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন