বিজয় মাল্যর জমি-জমা, সম্পত্তি, শেয়ার বাজেয়াপ্ত করে নিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সেই সম্পত্তির মোট মূল্য ৬৬৩০ কোটি টাকা। কিংফিশার এয়ারলাইনস-এর নামে মাল্য ব্যাঙ্ক থেকে ৯ হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। কিন্তু সেই অর্থ তিনি শোধ করেননি। উপরন্তু তাঁর বিরুদ্ধে সেই টাকা তছরুপের অভিযোগ রয়েছে।

মাল্যের বাজেয়াপ্ত করা সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে মুম্বইয়ের একটি নির্মীয়মাণ মল,বেঙ্গালুরুতে একটি বিলাসবহুল বাড়ি, মহারাষ্ট্রের একটি ফার্মহাউস। মল আর বাড়ির বর্তমান মূল্য ৮০০ কোটি টাকা এবং ফার্মহাউসটির মূল্য ২০০ কোটি টাকা।  এর সঙ্গে ইউনাইটেড ব্রুওয়ারিস লিমিটেড (ইউবিএল) ও ইউনাইটেড স্পিরিট লিমিটেড (ইউপিএল) এই দু’টি কোম্পানির মোট ৩ হাজার কোটি টাকার শেয়ারও ক্রোক করে নেয় ইডি। ২০১০ সালে এই সম্পত্তির মূল্য নির্ধারণ করেছিল ইডি। যার বর্তমান বাজারমূল্য ৬৬৩০ কোটি টাকা।

বর্তমানে তাঁর কিংফিশার এয়ারলাইনস বন্ধ। চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে তিনি দেশ ছেড়ে লন্ডনে বসবাস করছেন। ইতিমধ্যে একাধিকবার ইডি তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করলেও তিনি দেখা করতে অসম্মত হন। তিনি যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। জানিয়েছেন, ঋণের বিষয়টি নিয়ে তিনি ব্যাঙ্কগুলির সঙ্গে কথা বলছেন।

স্টেট ব্যাঙ্ক সহ বিভিন্ন ব্যাঙ্কের যে কনসর্টিয়ামের কাছে মাল্য টাকা ধার করেছিলেন, সেই কনসর্টিয়ামের তরফে আগস্ট মাসের শেষ সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্টে জানানো হয়, মাল্যর কাছে  বারংবার সম্পত্তির হিসাব চাওয়া হলেও, তিনি সঠিক তথ্য দেননি এবং ফেব্রুয়ারি মাসে ব্রিটিশ সংস্থা থেকে পাওয়া ৪০ কোটি ডলারের হিসাবও দাখিল করেননি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here