হিমালয়ের কোলে বিলাসবহুল বিয়ের আয়োজন! সরব পরিবেশ ও পাহাড়প্রেমীরা

0

আউলি (উত্তরাখণ্ড): হিমালয়ের কোলে উত্তরাখণ্ডের অন্যতম সেরা পর্যটন কেন্দ্র আউলি। সমুদ্রতল থেকে আড়াই হাজার মিটার উচ্চতায় এই আউলিকে স্কিয়িংয়ের স্বর্গরাজ্যও বলা যায়। শীতে যখন গোটা আউলি উপত্যকা সাদা বরফের চাদরে মুড়ে যায়, তখনই এখানে আসর বসে স্কিয়িংয়ের। আউলিকে ঘিরে রেখেছে হাতি-ঘোড়ি-পালকি পর্বতশৃঙ্গ। আর তার একদিকে রয়েছে নন্দাদেবী। সব মিলিয়ে পর্যটন মানচিত্রে এক অনন্য নাম আউলি।

সেই আউলিই এ বার সংবাদ শিরোনামে অন্য একটি কারণে। এমন একটি কারণ, যার ফলে বিস্তর পরিবেশ ধ্বংসের সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছে। পরিবেশগত ভাবে অত্যন্ত সংবেদনশীল এই আউলিতে বিলাসবহুল বিয়ের আসর বসেছে। যার মোট খরচ প্রায় দুশো কোটি টাকা। এই রকম বিয়ের আসর, এই ধরনের জায়গায় আয়োজন করার জন্য ইতিমধ্যে রাজ্য সরকারকে তীব্র ভর্ৎসনা করেছে উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত সাউথ আফ্রিকার বিতর্কিত দুই শিল্পপতি অজয় গুপ্তা এবং অতুল গুপ্তার ছেলেদের বিয়ের আসর বসেছে এই আউলিতে। গত মাস খানেক ধরেই আউলিতে সাজো সাজো রব ছিল। মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে বিয়ের আসল অনুষ্ঠান, যা চলবে শনিবার পর্যন্ত।

কোনো বিয়েতে মোট খরচ যদি দুশো কোটি টাকা হয়, তা হলে কী আয়োজন করা হচ্ছে, সেটা তো সহজেই অনুমেয়। আউলির মতো পাহাড়ি জায়গায় পরিবেশকে সাংঘাতিক ভাবে ধ্বংস করা হচ্ছে এই বিয়েকে কেন্দ্র করে, এই অভিযোগ তুলে হাইকোর্টে জনস্বার্থের আবেদন (পিআইএল) দাখিল করেন এক ব্যক্তি। সেই আবেদনের ভিত্তিতেই রাজ্য সরকারের ওপরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রমেশ রঙ্গনাথন। রাজ্যের দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদকে অবিলম্বে সেই স্থানে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বিয়ের স্থান পরিদর্শন করে দ্রুত একটি রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে আদালত জানিয়েছে, “রাজ্য সরকার এ রকম জায়গায় এ রকম বিলাসবহুল বিয়ের আয়োজন করে বিশাল ভুল বার্তা দিয়েছে।”

আরও পড়ুন তীব্র জলসংকটে জেরবার ভারতের আরও এক শহর, এক ফোঁটা জলের জন্য হাহাকার

উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরের আদি বাসিন্দা এই গুপ্তা পরিবার। বিতর্কিতও বটে। কারণ সাউথ আফ্রিকার গদিচ্যুত প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জেকব জুমার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে তাঁদের। দুর্নীতির অভিযোগে গদিচ্যুত হতে হয় জুমাকে। সেই দুর্নীতিতে হাত থাকার অভিযোগ উঠেছে গুপ্তা ভাইয়ের বিরুদ্ধেও। এমনকি জোহানেসবার্গে তাঁদের বিলাসবহুল অট্টালিকাতেও তল্লাশি চালায় সাউথ আফ্রিকা পুলিশ।

বিয়ের এই আসরের জন্য আউলির এই উপত্যকা জুড়ে একাধিক হেলিপ্যাড তৈরির অনুমতিও দিয়েছে রাজ্য সরকার।

এই ব্যাপারেই বিরোধীদের প্রশ্ন, এই পরিবেশ ধ্বংস করে এই বিলাসবহুল বিয়ে আয়োজনের পেছনে কোনো বড়ো দুর্নীতির ছায়া নেই তো!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here