money

ওয়েবডেস্ক: বেসরকারি ক্ষেত্রে কর্মরতদের একটা চিন্তা মাথায় থেকেই যায়। সেটা হল অবসরের পরের আর্থিক সামর্থ্যের ব্যাপারটা। কেন না, সরকারি ক্ষেত্রে পেনশনের সুযোগ থাকে। ও দিকে, বেসরকারি ক্ষেত্রে অবসরের পরে টাকা ঘরে রাখতে ইপিএফ বা এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ড, পিপিএফ বা পার্সোনাল প্রভিডেন্ট ফান্ড এবং ভিপিএফ বা ভলান্টারি প্রভিডেন্ট ফান্ডই ভরসা!

কিন্তু ঠিক কোন প্রকল্পে টাকা রাখলে আপনার লাভ বেশি? সেটা এ বার দেখে নেওয়া যাক এক এক করে!

সুদের পরিমাণ:
ইপিএফ-এ সুদের পরিমাণ ৮.৭ শতাংশ। অন্য দিকে, বাদ বাকি দুই ক্ষেত্রেই সুদের হার ৮.৭৫ শতাংশ করে।

ট্যাক্স বেনেফিট:
তিনটি খাতেই পরিমাণটা বছরে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত!

সঞ্চয়ের সময়সীমা:
ইপিএফ-এ ১৫ বছর পর্যন্ত টাকা জমানো যাবে। কিন্তু বাকি দুটি ক্ষেত্রে অবসরের সময় পর্যন্ত জমানো যাবে টাকা।

লোন-এর সুবিধা:
ইপিএফ-এর ক্ষেত্রে টাকা জমাতে শুরু করার ৬ বছর পরে দরকার হলে জমানো টাকার ৫০ শতাংশ লোন হিসাবে তোলা যায়। বাকি দুটি ক্ষেত্রে এতটাও পাওয়া যায় না। নির্ভর করে পরিস্থিতির উপরে।

এমপ্লয়ারের অনুদান:
ভিপিএফ-এ এমপ্লয়ারকে বেতনের ১২ শতাংশ দিতে হয়। অন্য দুটি খাতে দিতে হয় না।

এমপ্লয়ির অবদান:
ভিপিএফ-এ এমপ্লয়িকে ১২ শতাংশ, পিপিএফ-এ মর্জিমতো টাকা দিতে হয়। ইপিএফ-এ কিছুই দিতে হয় না।

এ বার সিদ্ধান্ত আপনার!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here