Connect with us

দেশ

‘মোদীজি কি সেনা’, যোগীর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রাক্তন নৌ প্রধান চিঠি দিলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে

Admiral Ramdas

ওয়েবডেস্ক: “দেশের সশস্ত্র বাহিনী কোনো ব্যক্তিবিশেষ বা কোনো রাজনৈতিক দলের ব্যক্তিগত বাহিনী নয়,” – এ ভাবেই যোগী আদিত্যনাথের মন্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানালেন নৌ বাহিনীর প্রাক্তন প্রধান অ্যাডমিরাল এল রামদাস।

রবিবার এক নির্বাচনী জনসভায় উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ দেশের সেনাবাহিনীকে ‘মোদীজি কি সেনা’ বলেছিলেন। যোগীর ওই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে অ্যাডমিরাল রামদাস মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে তিনি বলেছেন, দেশের সেনাবাহিনী সম্পর্কে এ ধরনের মন্তব্য আদৌ মেনে নেওয়া যায় না।

রাজনৈতিক দলগুলি দেশের সেনাবাহিনীর রাজনীতিকরণ করার চেষ্টা করছে এবং সেনার ছবি নির্বাচনী প্রচারে কাজে লাগানো হচ্ছে বলে তিন সপ্তাহ আগেই মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছিলেন প্রাক্তন নৌ প্রধান।

আরও পড়ুন কংগ্রেসের ইস্তেহারে রয়েছে দু’টি বড়োসড়ো চমক

অ্যাডমিরাল রামদাস তাঁর সর্বশেষ চিঠিতে সিইসি-কে বলেছেন, “এ ধরনের ঘটনা যে ঘটতে চলেছে গত মাসে আপনাকে চিঠি দিয়ে সেই আশঙ্কাই ব্যক্ত করেছিলাম।” তিনি বলেছেন, সশস্ত্র বাহিনীর প্রবীণতম প্রাক্তন প্রধান হিসাবে এটা আপনার জ্ঞাতার্থে আনা কর্তব্য বলে মনে হয়েছে। “আমরা, দেশের সশস্ত্র বাহিনী, একমাত্র দেশের সংবিধানের কাছে দায়বদ্ধ।”

মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের উপর আস্থা প্রকাশ করে অ্যাডমিরাল রামদাস বলেছেন, এ ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ বন্ধ করতে তিনি নিশ্চয়ই যত শীঘ্র সম্ভব ‘কার্যকর ব্যবস্থা’ নেবেন।

নির্বাচন কমিশন যোগী আদিত্যনাথের মন্তব্যের ব্যাপারে গাজিয়াবাদ জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়েছে। উল্লেখ্য, রবিবার গাজিয়াবাদে এক জনসভায় যোগী আদিত্যনাথ বলেন, কংগ্রেস সন্ত্রাসবাদীদের বিরয়ানি পাঠাত, আর মোদীজির সেনা সন্ত্রাসবাদীদের বুলেট আর বোমা পাঠায়।

 

দেশ

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষের গণ্ডি ছাড়াল, কিছুটা কমল রোগীবৃদ্ধির হার

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভারতে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা ছয় লক্ষের গণ্ডি ছাড়াল। যদিও রোগীবৃদ্ধির হার আরও কিছুটা কমেছে। সেই সঙ্গে একটু বেড়েছে সুস্থতার হারও।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) রিপোর্টে দেখা গিয়েছে যে এই মুহূর্তে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬ লক্ষ ৪ হাজার ৬৪১। যদিও এর মধ্যে ৫৯.৫১ শতাংশ মানুষই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৫৯ হাজার ৮৬০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২ লক্ষ ২৬ হাজার ৯৪৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৭,৮৩৪ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯,১৪৮ জন। সুস্থ হয়েছেন ১১,৯১২ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪৩৪ জনের। রোগীবৃদ্ধির হার কিছুটা কমে এখন রয়েছে ৩.২৭ শতাংশ।

উল্লেখ্য, এখনও পর্যন্ত দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় সর্বাধিক বৃদ্ধির রেকর্ডটি তৈরি হয়েছিল গত রবিবার। সে দিন আক্রান্ত হয়েছিলেন ১৯,৯০৬ জন। তার পর থেকে পর পর চার দিন নতুন আক্রান্তের সংখ্যাটা কিছুটা স্থিতিশীল হওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে। যদিও আগামী দিনে আরও নতুন রেকর্ডের আশঙ্কা থেকেই যায়।

এরই মধ্যে আরও কিছুটা স্বস্তির খবর শুনিয়েছে চেন্নাইয়ের ইন্সটিটিউট অব ম্যাথামেটিকাল সায়ান্সেসের (আইএমএস) বিজ্ঞানীরা।

তাঁরা জানিয়েছেন, ভারতে করোনার ‘এফেক্টটিভ রিপ্রোডাকশন নম্বর’ (Effective Reproduction Number) তথা ‘আর নম্বর’ এখন কমে এসেছে ১.১১-এ। জুন মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত সেটি ১.২২ থাকার পর শেষ সপ্তাহে ১.১৩-এ নেমে আসে। জুলাইয়ের শুরুতে সেটা আরও কিছুটা কমেছে।

উল্লেখ্য, এই আর নম্বরটি হল সংক্রমণের হার মাপার একটি গাণিতিক হিসেব। এক জন করোনা রোগী কত জন সুস্থ মানুষকে সংক্রমিত করছেন আর সেই সংখ্যার হিসেবে হার কতটা বাড়ছে, সেটাই হিসেব হয় এই নম্বরটি দিয়ে।

এই আর নম্বরটি তিনটে ফ্যাক্টরের ওপরে নির্ভর করে। প্রথমত, এক জন করোনা পজিটিভ রোগীর মধ্যে দিয়ে অন্য জনে সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার ঝুঁকি কতটা, দ্বিতীয়ত, আক্রান্ত ও সংক্রমণের সন্দেহে থাকা ব্যক্তিরা কত জনের সংস্পর্শে আসছেন তার গড় হিসেব, তৃতীয়ত, এক জনের থেকে সংক্রমণ কত জনের মধ্যে এবং কত দিনে ছড়াচ্ছে তার গড় হিসেব।

এই আর নম্বর ১-এর নীচে চলে এলেই করোনার ওপরে নিয়ন্ত্রণ চলে আসবে। কারণ সেটা হলে একজন সংক্রমিত ব্যক্তির থেকে একজন সুস্থ ব্যক্তির সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।

Continue Reading

দেশ

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ১৯,১৪৮, সুস্থ ১১,৯১২

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভারতে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যায় কোনো রকম লাগাম না টানা গেলেও লকডাউনের কড়াকড়ি অনেকটাই শিথিল করা হয়েছে। শুরু হয়েছে আনলক পর্ব। মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে পড়েছেন। স্বাভাবিক ভাবেই এখন আক্রান্তের সংখ্যা আগের থেকে অনেকটাই বাড়বে। মঙ্গলবার, তথা ১ জুলাই থেকে নতুন করে কোভিড আপডেট শুরু করল খবরঅনলাইন। ৩০ জুন পর্যন্ত যাবতীয় আপডেট পড়ার জন্য ক্লিক করুন এখানে

==================================================================

২ জুলাই, সকাল সাড়ে ন’টা

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) রিপোর্টে দেখা গিয়েছে যে এই মুহূর্তে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬ লক্ষ ৪ হাজার ৬৪১। যদিও এর মধ্যে ৫৯.৫১ শতাংশ মানুষই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৫৯ হাজার ৮৬০। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২ লক্ষ ২৬ হাজার ৯৪৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৭,৮৩৪ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯,১৪৮ জন। সুস্থ হয়েছেন ১১,৯১২ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪৩৪ জনের। রোগীবৃদ্ধির হার কিছুটা কমে এখন রয়েছে ৩.২৭ শতাংশ।

১ জুলাই, সকাল সাড়ে ন’টা

বুধবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক (Ministry of Health and Family Welfare) যে পরিসংখ্যান দিয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে যে এই মুহূর্তে ভারতে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ লক্ষ ৮৫ হাজার ৪৯৩। এর মধ্যে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২ লক্ষ ২০ হাজার ১১৪। সুস্থ হয়েছেন ৩ লক্ষ ৪৭ হাজার ৯৪৮। মৃত্যু হয়েছে ১৭,৪০০ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮,৬৫৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ১৩,১২৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫০৭ জনের।

Continue Reading

দেশ

জয়রাজ-বেনিক্স হত্যার ঘটনায় ধৃত চার পুলিশ অফিসার, মূল অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের মামলা

খবরঅনলাইন ডেস্ক: তামিলনাড়ুতে (Tamil Nadu) জেলের ভেতরে বাবা আর ছেলের ওপরে পুলিশি নির্যাতনের ঘটনায় চার পুলিশ আধিকারিককে গ্রেফতার করেছে সিআইডি (CID)।

এই চার জনের মধ্যে একজন মূল অভিযুক্ত সাব ইন্সপেক্টর রঘু গণেশকে আগেই গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাঁর বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে।

তুতুকোডির জেলে পুলিশি নৃশংশতার তদন্ত চালাচ্ছে একাধিক তদন্তকারী দল। যৌথ ভাবে তদন্ত চালাচ্ছে ক্রাইম ব্রাঞ্চ এবং সিআইডি। তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ নং ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

এ ছাড়াও মূল অভিযুক্ত রঘু গণেশ এবং বালাকৃষ্ণণের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে বিশেষ তদন্তকারী দল।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জুন জেলের ভেতরে নৃশংস ভাবে অত্যাচার করা হয় তুতুকোডির সাধারণ দোকানি জয়রাজ আর তাঁর ছেলে বেনিক্সকে। লকডাউনে দোকান বন্ধ করার সময় হয়ে গেলেও কেন তাঁরা দোকান খোলা রেখেছেন, সেই অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযোগ, হেফাজতে থাকাকালীন নৃশংস শারীরিক অত্যাচার চালানো হয়েছিল এই বাবা-ছেলের ওপরে।। ময়না তদন্তের রিপোর্টে তাঁদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়। দু’জনের বিরুদ্ধে ১৮৩, ৩৮৩ ও ৫০৬ (খ) ধারায় মামলাও রুজু করেছিল পুলিশ। ২৩ ঘণ্টার ব্যবধানে মৃত্যু হয় বাবা ও ছেলের।

ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই প্রবল সমালোচনার মুখে পড়ে পুলিশ। গোটা দেশই গর্জে ওঠে। প্রতিবাদীরা জর্জ ফ্লয়েড হত্যার সঙ্গেও তুলনা করতে থাকেন এই ঘটনাকে। পুলিশি অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব হন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও। গোটা ঘটনায় প্রবল চাপের মুখে পড়ে অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয় শাসক দল এএআইএডিএমকে।

এর পরে দুই সাব ইনসপেক্টর রাতারাতি গ্রেফতার হন। অন্য দিকে স্থানীয় বিচার বিভাগীয় ম্যা্জিস্ট্রেটের রিপোর্টে পুলিশি হেফাজতে অত্যাচারের ঘটনায় তদন্তে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠে আসে তুতুকোডির ডিএসপি সি প্রথপন, অতিরিক্ত ডিএসপি ডি কুমার এবং কনস্টেবল মহারাজনের বিরুদ্ধ। ওই তিন জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার নির্দেশ দিয়েছে মাদ্রাজ হাইকোর্ট।

Continue Reading
Advertisement
ভ্রমণের খবর24 mins ago

খুলে গেল পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন আর বনোন্নয়ন নিগমের আরও কয়েকটি লজ

দেশ2 hours ago

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষের গণ্ডি ছাড়াল, কিছুটা কমল রোগীবৃদ্ধির হার

দেশ2 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ১৯,১৪৮, সুস্থ ১১,৯১২

বিদেশ3 hours ago

আমেরিকায় আরও ভয়াবহ ভাবে জাল বিস্তার করছে করোনা, এক দিনেই আক্রান্ত ৫২ হাজার

ক্রিকেট3 hours ago

চলে গেলেন ‘থ্রি ডব্লু’-এর শেষ জন স্যার এভার্টন উইকস, শেষ হল একটা অধ্যায়

ক্রিকেট3 hours ago

২০১১ বিশ্বকাপ কাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হল কুমার সঙ্গকারা, মাহেলা জয়বর্ধনকে

দেশ4 hours ago

জয়রাজ-বেনিক্স হত্যার ঘটনায় ধৃত চার পুলিশ অফিসার, মূল অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের মামলা

বিদেশ5 hours ago

চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার ভারতীয় সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাল আমেরিকা

নজরে