‘মোদীজি কি সেনা’, যোগীর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রাক্তন নৌ প্রধান চিঠি দিলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে

0
Admiral Ramdas
অ্যাডমিরাল রামদাস।

ওয়েবডেস্ক: “দেশের সশস্ত্র বাহিনী কোনো ব্যক্তিবিশেষ বা কোনো রাজনৈতিক দলের ব্যক্তিগত বাহিনী নয়,” – এ ভাবেই যোগী আদিত্যনাথের মন্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানালেন নৌ বাহিনীর প্রাক্তন প্রধান অ্যাডমিরাল এল রামদাস।

রবিবার এক নির্বাচনী জনসভায় উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ দেশের সেনাবাহিনীকে ‘মোদীজি কি সেনা’ বলেছিলেন। যোগীর ওই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে অ্যাডমিরাল রামদাস মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে তিনি বলেছেন, দেশের সেনাবাহিনী সম্পর্কে এ ধরনের মন্তব্য আদৌ মেনে নেওয়া যায় না।

রাজনৈতিক দলগুলি দেশের সেনাবাহিনীর রাজনীতিকরণ করার চেষ্টা করছে এবং সেনার ছবি নির্বাচনী প্রচারে কাজে লাগানো হচ্ছে বলে তিন সপ্তাহ আগেই মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছিলেন প্রাক্তন নৌ প্রধান।

আরও পড়ুন কংগ্রেসের ইস্তেহারে রয়েছে দু’টি বড়োসড়ো চমক

অ্যাডমিরাল রামদাস তাঁর সর্বশেষ চিঠিতে সিইসি-কে বলেছেন, “এ ধরনের ঘটনা যে ঘটতে চলেছে গত মাসে আপনাকে চিঠি দিয়ে সেই আশঙ্কাই ব্যক্ত করেছিলাম।” তিনি বলেছেন, সশস্ত্র বাহিনীর প্রবীণতম প্রাক্তন প্রধান হিসাবে এটা আপনার জ্ঞাতার্থে আনা কর্তব্য বলে মনে হয়েছে। “আমরা, দেশের সশস্ত্র বাহিনী, একমাত্র দেশের সংবিধানের কাছে দায়বদ্ধ।”

মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের উপর আস্থা প্রকাশ করে অ্যাডমিরাল রামদাস বলেছেন, এ ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ বন্ধ করতে তিনি নিশ্চয়ই যত শীঘ্র সম্ভব ‘কার্যকর ব্যবস্থা’ নেবেন।

নির্বাচন কমিশন যোগী আদিত্যনাথের মন্তব্যের ব্যাপারে গাজিয়াবাদ জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়েছে। উল্লেখ্য, রবিবার গাজিয়াবাদে এক জনসভায় যোগী আদিত্যনাথ বলেন, কংগ্রেস সন্ত্রাসবাদীদের বিরয়ানি পাঠাত, আর মোদীজির সেনা সন্ত্রাসবাদীদের বুলেট আর বোমা পাঠায়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here