১১ জনের রহস্যমৃত্যুর ঘা দগদগে সেই বাড়ির ভাড়াটে জুটল!

0
এই সেই বাড়ি। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: গত ২০১৮ সালের ৭ জুলাই উত্তর দিল্লির বুরারি এলাকায় একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় ১১ জনের মৃতদেহ। এর মধ্যে ১০ জনকে পাওয়া যায় ঝুলন্ত অবস্থায়। বাকি এক ৭৫ বছরের বৃদ্ধার মৃতদেহ মিলেছিল মেঝেতে। মৃতের তালিকায় সাত জন মহিলা এবং চার জন পুরুষ। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ বলে, আত্মহত্যা করেছে ওই পরিবার। তবে পরে জানা যায়, মৃত্যুর নেপথ্যে ছিল অন্য কারণ। সেই বাড়িটিই এত দিন ফাঁকা পড়ে থাকার পর নতুন ভাড়াটে পেল।

মোহন কাশ্যপ নামে এক ব্যক্তি স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকবেন ওই বাড়িতে। এলাকার মানুষের মনে বাড়িটি নিয়ে এখনও দগদগে ক্ষত। খুব একটা ধারেকাছে ঘেঁষতে দেখা যায় না কাউকে। অনেকেরই ভ্রান্ত ধারণা, বাড়িটিতে ভূত রয়েছে।

একই দিনে মৃত ব্যক্তিরা

তবে মোহন জানিয়েছেন, তিনি ভূত বিশ্বাস করেন না। তিনি কোনো ধরনের অন্ধসংস্কারের বিশ্বাসী নন। এখন দিল্লিরভজনপুরায় থাকেন। আগামী ৩০ ডিসেম্বর বুরারির বাড়িটিতে চলে যাচ্ছেন।

[আরও পড়ুন: বিয়ের আয়োজনের মাঝেই একই পরিবারের এগারো জনের রহস্যমৃত্যু, ঝুলন্ত দশ]

প্রসঙ্গত, আত্মহত্যা নয়, কোনো ধর্মীয় আচার পালন করতে গিয়েই ঘটেছিল ওই দুর্ঘটনা। এমনটাই দাবি করা হয়, সাইকোলজিক্যাল অটোপসি রিপোর্টে। বলা হয়, তন্ত্রসাধনার পদ্ধতি পালন করতে গিয়েই ওই ভয়াবহকাণ্ড ঘটে যায়।

------------------------------------------------
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।
কোভিড১৯ বিরুদ্ধে লড়াইকে শক্তিশালী করুনপশ্চিমবঙ্গ সরকারের জরুরি ত্রাণ তহবিলে দান করুন।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.