সামনে দীপাবলি! শব্দবাজি নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য সুপ্রিম কোর্টের

0

কর্মসংস্থানের অজুহাতে শব্দবাজির অনুমতি দেওয়া যায় না, বলল সুপ্রিম কোর্ট।

নয়াদিল্লি: কর্মসংস্থানের অজুহাতে নিরীহ মানুষের জীবন বিপন্ন করে শব্দবাজির পক্ষে সওয়াল করা যাবে না বলে আবার এক বার স্পষ্ট জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। মঙ্গলবার বিচারপতি এমআর শাহ এবং এএস বোপান্নার বেঞ্চ বলল, এ ভাবে নাগরিকদের জীবনযাপনের অধিকার লঙ্ঘন করা যাবে না।

বেঞ্চ বলে, “কর্মসংস্থান, বেকারত্ব এবং নাগরিকের জীবনযাপনের অধিকারের মধ্যে ভারসাম্য রক্ষা করতে হবে আমাদের। সামান্য কিছু মানুষের হাতে কাজ জুটবে, এমন যুক্তি দেখিয়ে আমরা অন্যের জীবনযাপনের অধিকার লঙ্ঘনের অনুমতি দিতে পারি না”।

আইনের বাস্তবায়নে খামতি

এ দিনের শুনানিতে বেঞ্চ আরও বলে, “আমাদের মূল আলোচ্য বিষয় হল নিরীহ নাগরিকদের জীবনযাপনের অধিকার। আমরা যদি পরিবেশ বান্ধব বাজি খুঁজে পাই এবং বিশেষজ্ঞদের কমিটি সেগুলোকে অনুমোদন দেয়, তবেই আমরা উপযুক্ত নির্দেশ দেব”।

Shyamsundar

আমাদের দেশে আইন থাকলেও তা বাস্তবায়নের খামতি নিয়ে সমালোচনা করে বেঞ্চ জানায়, “আইন আছে, কিন্তু চূড়ান্ত ভাবে তার বাস্তবায়ন হতে হবে। আমাদের রায় প্রকৃত চেতনা নিয়ে প্রয়োগ করা উচিত”।

কয়েক লক্ষ মানুষের দুর্দশা!

সামনে দীপাবলি। এ দিনের শুনানিতে সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করে শব্দবাজি প্রস্তুতকারক সংগঠনের পক্ষে সওয়াল করে আইনজীবী আত্মারাম নাডকর্ণী বলেন, আগামী নভেম্বরের দীপাবলি আসছে। কয়েক লক্ষ বেকারের রুটিরুজির কথা মাথায় রেখে সরকারের উচিত এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া।

তিনি আরও বলেন, আইন মেনে চলতে হবে। কিন্তু এই শিল্পে কর্মরত কয়েক লক্ষ মানুষের দুর্দশার দিকেও নজর দেওয়া উচিত।

আবেদনকারী অর্জুন গোপালের পক্ষে হাজির হয়ে প্রবীণ আইনজীবী গোপাল শঙ্করনারায়ণন বলেন, এ ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্ট ধারাবাহিক রায় দিয়েছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থা শুধুমাত্র সেই সব বাজির অনুমোদন দিতে পারে, যা তুলনামূলক ভাবে নিরাপদ।

সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞায় ‘না’

কেন্দ্রের পরিবেশ ও বন মন্ত্রকের পক্ষে উপস্থিত হয়ে অ্যাডিশনাল সলিসিটর জেনারেল ঐশ্বর্য ভাটি বলেন, ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে এ ব্যাপারে হলফনামা দাখিল করেছিল মন্ত্রক। বিশেষজ্ঞরা শুধুমাত্র পরিবেশ-বান্ধব বাজির অনুমোদনেই পরামর্শ দিয়েছেন।

এর আগে শব্দবাজির উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করতে অস্বীকার করেছিল সর্বোচ্চ আদালত। বলা হয়েছিল, শুধুমাত্র পরিবেশ-বান্ধব বাজি বিক্রি করা যাবে। এবং সেটা করতে পারবেন একমাত্র লাইসেন্সপ্রাপ্ত ব্যবসায়ীরা। বায়ুদূষণ রোধে সারা দেশে বাজি উৎপাদন ও বিক্রয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আবেদনের প্রতিক্রিয়ায় এই রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট।

আজকের আরও কিছু কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়তে পারেন:

পঞ্জাব কংগ্রেসে ফের নাটকীয় মোড়, প্রদেশ সভাপতিপদ ছাড়লেন নভজ্যোৎ সিংহ সিধু

বিজেপি-র সমস্ত পদ ছাড়লেন অভিনেতা সুমন বন্দ্যোপাধ্যায়, দলত্যাগের জল্পনা তুঙ্গে

সিপিআই ছাড়ার আগে পার্টি অফিস থেকে নিজের লাগানো এসি সরিয়েছেন কানহাইয়া কুমার

মুকুল রায়কে নিয়ে স্পিকারের সিদ্ধান্ত জানানোর সময় বেঁধে দিল হাইকোর্ট

ভবানীপুরের উপনির্বাচন স্থগিত নয়, রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট

পশ্চিমবঙ্গের বাকি চার বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করে দিল নির্বাচন কমিশন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন