Modi asking

ওয়েবডেস্ক: গত কয়েক মাস ধরেই এনডিএ জোট শরিক রাষ্ট্রীয় লোক সমতা পার্টি (আরএলএসপি) একাধিক বার কেন্দ্রের বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে। বিজেপির আচরণকে ‘বড়দার দাদাগিরি’ বলেও কটাক্ষ করেছিলেন দলের কর্ণধার উপেন্দ্র কুশওয়া। আবার বিহারের বিরোধী দলের সঙ্গেও বিজেপি-বিরোধী জোট করার ইঙ্গিত দিয়ে বৈঠকও করেছেন। শনিবার তিনি কার্যত একশো আশি ডিগ্রি অবস্থান বদল করে আগামী ২০১৯-এ নরেন্দ্র মোদীকেই প্রধানমন্ত্রীপদে দেখতে চাওয়ার আশা প্রকাশ করলেন।

গত শুক্রবারই বিহারের বিরোধী নেতা তেজস্বী যাদবের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন উপেন্দ্র। শনিবার তিনি সংবাদ মাধ্যমের কাছে বলেন, “আমরা এনডিএ-তেই আছি। পাশাপাশি আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে আমরা নরেন্দ্র মোদীকেই প্রধানমন্ত্রীপদে দেখতে চাই। আমাদের দেশের জন্য এট‌া অত্যন্ত জরুরি”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “আরএলএসপি-র এনডিএ ছেড়ে যাওয়ার কোনো প্রশ্নই নেই। ফলে আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি-বিরোধী মহাজোটে নাম লেখানোরও কোনো সম্ভাবনা নেই”।

বিহারে এনডিএ সঙ্গী নীতীশ কুমারের জেডি (ইউ)-র সঙ্গে বিজেপির আসন সমঝোতা হয়েছে বলে কয়েক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে আরএলএসপি-র সম্পর্কে কোনো উচ্চবাচ্য নেই। এ ব্যাপারে উপেন্দ্র দাবি করেন, “বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। খুব শীঘ্রই তাঁর সঙ্গে আমি দেখা করব। ওই বৈঠকেই আসন বণ্টনের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়ে যাবে”।

সব মিলিয়ে রাজনৈতিক মহলের ধারণা, হতে পারে তেজস্বী যাদবের সঙ্গে উপেন্দ্র বৈঠকে আসন সমঝোতা সংক্রান্ত বিষয়েই মতৈক্য না হওয়ায় এই ভোলবদল!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here