খবর অনলাইন ডেস্ক: ভারতের তৃতীয় কোভিড টিকা হিসেবে ছাড়পত্র পেয়েছে রাশিয়ার স্পুটনিক-ভি। এ বার ভারতে সেই টিকা তৈরির সরকারি অনুমোদন পেল প্যানাসিয়া বায়োটেক।

ছাড়পত্র দিয়েছে ডিসিজিআই

sputnik v vaccine
[রাশিয়ার তৈরি স্পুটনিক ভি। প্রতীকী ছবি]

ভারতের ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল রাশিয়ার তৈরি কোভিড ভ্যাকসিন স্পুটনিক ভি তৈরির লাইসেন্স দিয়েছে প্যানাসিয়া বায়োটেককে। রবিবার সংস্থাটি ঘোষণা করেছে, তারাই প্রথম সংস্থা হিসেবে ভারতে এই ভ্যাকসিনের স্থানীয় উৎপাদন করতে চলেছে।

রাশিয়ান ডাইরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ)-এর সঙ্গে স্পুটনিক ভি তৈরির জন্য ছ’টি সংস্থা চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। সেগুলির মধ্যে প্যানাসিয়া একটি। আরডিআইএফ জানিয়েছে, গ্ল্যান্ড ফার্মা, হেটেরো বায়োফার্মা, স্টেলিস বায়োফার্মা ও ভির্কো বায়োটেকের মতো প্রস্তুতকারক সংস্থার সঙ্গে তাদের চুক্তি হয়েছে।

প্যানাসিয়া বায়োটেক এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আরডিআইএফ-এর সহযোগিতায় কোভিডের ভ্যাকসিন স্পুটনিক ভি উৎপাদনের জন্য তাদের ছাড়পত্র দিয়েছে ডিসিজিআই। এ ব্যাপারে তারা প্রয়োজনীয় লাইসেন্স পেয়েছে। যেখানে প্রয়োজনীয় শর্ত হিসেবে বলা হয়েছে সংস্থার উৎপাদিত ভ্যাকসিন ভারতেই ব্যবহৃত হবে।

সংস্থা দাবি করেছে, স্পুটনিক ভি-এর দু’টি ডোজ নেওয়ার পর কোভিডের গুরুতর প্রভাব রুখতে তা ৯১.৬ শতাংশ কার্যকরী। হিমাচলপ্রদেশের বদ্দিতে প্যানাসিয়া বায়োটেকের প্রকল্প রয়েছে। প্রাথমিক পরীক্ষার জন্য সেখানে তৈরি স্পুটনিক ভি পাঠানো হয়েছিল রাশিয়ার গামালিয়া সেন্টারে।

কবে নাগাদ ভারতে মিলবে?

[প্রথম ডোজটি হায়দরাবাদে দেওয়া হয়েছিল। ফাইল ছবি]

সংস্থার ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, উল্লিখিত ব্যাচগুলি রাশিয়ার গামালিয়া সেন্টার এবং ভারতে হিমাচলপ্রদেশের কসৌলির সেন্ট্রাল ড্রাগ ল্যাবরেটরি, উভয় জায়গাতেই সফল ভাবে যাবতীয় মাপকাঠি অর্জন করেছে।

তবে তাদের তৈরি স্পুটনিক ভি কবে নাগাদ ভারতের বাজারে মিলবে, সে ব্যাপারে কোনো তথ্য এখনও প্রকাশ করেনি সংস্থা। তবে এটা জানা গিয়েছে, আরডিআইএফ-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে প্যানাসিয়া ১০ কোটি ডোজ স্পুটনিক ভি তৈরি করতে পারে।

অন্য দিকে ভারতে স্পুটনিক ভি বিপণনের জন্য রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে ডক্টর রেড্ডি’জ ল্যাবরেটরিজ। তারা এ দেশে ২৫ কোটি ডোজের জন্য চুক্তি করেছে। ফলে প্যানাসিয়া ওই ভ্যাকসিন তৈরি করলে সেটার পুরোটাই পেতে পারে ডক্টর রেড্ডি’জ।

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিল ভারতীয় নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছ থেকে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন পায় স্পুটনিক ভি। এর পর এ দেশে ওই টিকার ব্যবহার শুরু হয় গত ১৪ মে থেকে। ভারতে এই ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজটি হায়দরাবাদে দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়তে পারেন: ডোজ প্রতি দাম প্রায় ১ হাজার, দেশে শুরু হল স্পুটনিক ভি-র টিকাকরণ

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন