মুম্বই : ১১৪ বছরের তাজ হোটেল ট্রেডমার্ক-বিশিষ্ট সম্পত্তি হিসেবে নথিভুক্ত হল। দেশের মধ্যে এই প্রথম কোনো স্থাপত্য ট্রেডমার্কের তালিকায় স্থান পেল।

এখন থেকে তাজ হোটেলের ছবি বিনা অনুমতিতে আর কোনো কিছুতেই ব্যবহার করা যাবে না। বাণিজ্যিক কারণে এর ছবি ব্যবহার করতে হলে নিয়ম মেনে এর পরিচালন সংস্থাকে জানাতে হবে। ন্যায্য মূল্যের বিনিময়ে সেই অনুমতি আদায় করতে হবে। ট্রেডমার্ক অ্যাক্ট ১৯৯৯-এর অধীনে তাজ হোটেলকে নিয়ে আসার জন্য গত সাত মাস ধরে চেষ্টা চালানো হচ্ছিল বলে জানিয়েছে পরিচালন সংস্থা।

প্যারিসের আইফেল টাওয়ার, নিউইয়র্কের স্টেট এমপায়্যার বিল্ডিং, সিডনির অপেরা হাউসও ট্রেডমার্ক যুক্ত স্থাপত্যের তালিকাভুক্ত। এর আগে লোগো, ব্র্যান্ড নেম, কোনো রঙের সম্বন্বয়, বিশেষ কিছু সংখ্যা এমনকি শব্দ বা গানও ট্রেডমার্কের তালিকায় এসেছে। কিন্তু স্থাপত্য দেশের মধ্যে এই প্রথম।

১৯০৩ সালে তৈরি হয়েছিল আকাশচুম্বী তাজ হোটেল। ‘গেট ওয়ে অব ইন্ডিয়া’-রও আগে তৈরি হয়েছিল এই প্রাসাদোপম বাড়ি।

স্থাপত্যটির মৌলিকতা, অসাধারণত্ব বজায় রাখার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান ইন্ডিয়ান হোটেলস কাউন্সিলের (আইএইচসিএল) কর্মকর্তা রাজেন্দ্র মিশ্র।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় এই হোটেল তৈরি করেছিল সাপুরজি পালনজি অ্যান্ড কোং। তখন একটা হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করা হত তাজ প্যালেসকে।

প্রসঙ্গত, ২০০৮-এর জঙ্গি হামলার কবলে পড়েছিল তাজ হোটেল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন