Connect with us

দেশ

ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহলবাসীর মুক্তির পাঁচ বছর পূর্ণ

ছিটমহল সমস্যার সমাধানের পরই সেখানে উন্নয়নের কাজে হাত লাগান শেখ হাসিনা।

ঋদি হক: ঢাকা

ব্রিটিশ মাতব্বর আইনজীবী সিরিল র‌্যাডক্লিফ যে মানবিক সমস্যার সৃষ্টি করে গিয়েছিলেন, ৬৮ বছরের ছিটমহলবাসীদের সেই অবরুদ্ধ জীবনের মুক্তি আসে শেখ হাসিনার হাত ধরে।

দীর্ঘ বছর ভারতবর্ষকে শোষণ-নিপীড়নের পর অবশেষে ভারতমাতার অনেক সন্তানের রক্তের বিনিময়ে ব্রিটিশদের তাড়ানো সম্ভব হয় দেশভাগের বিনিময়ে। ব্রিটিশদের হাতেই ১৯৪৭ সালে ভারত ভাগের দায়িত্বটা তুলে দেওয়া হয়েছিল।  দখলদাররা এমন প্রস্তাবের সাদর আমন্ত্রণ পেয়ে সে বছরের ৮ জুলাই লন্ডন থেকে উড়িয়ে নিয়ে আসেন র‌্যাডক্লিফকে। মুহূর্তটুকু বিলম্ব না করে তাঁকে প্রধান করে  গঠন করা হয় সীমানা নির্ধারণ কমিশন।

মাত্র ছয় সপ্তাহের মাথায় ১৩ আগস্ট র‌্যাডক্লিফ সীমানা নির্ধারণের চূড়ান্ত প্রতিবেদন পেশ করেন। এর তিন দিন পর ১৬ আগস্ট জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয় সীমানার মানচিত্র। বিশাল ভারতবর্ষ ভাগ করে ভারত-পাকিস্তান মানচিত্র প্রকাশ করে এক কলঙ্কের গোড়াপত্তন করলেন মি. র‌্যাডক্লিফ। এই মানচিত্রের কারণে ১৬২টি খণ্ডভূমি অর্থাৎ ছিটমলের সৃষ্টি হয়। এর মধ্যে ভারতের ১১১টি ছিটমহল তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান অর্থাৎ অধুনা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে। আর বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহল ভারতের অভ্যন্তরে। এমন ভাগাভাগি আশ্চর্য ঘটনার খাতায় নাম লেখাতে পারে। ইতিহাস তাই বলছে।

ইন্দিরা-মুজিব চুক্তি

ভারতের বিদেশমন্ত্রকের সৌজন্যে।

১৯৭১ সাল। বর্বর পাকিস্তানি সেনাবাহিনী তৎকালীন পূর্ববঙ্গের সহজ সরল মানুষের ওপর রাতের আঁধারে হামলে পড়ে। তারা নির্বিচারে হত্যা-ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট চালাতে থাকে। দলে দলে বুদ্ধিজীবীদের ধরে নিয়ে হত্যা করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষক-বুদ্ধিজীবীকে হত্যার পাশাপাশি মেয়ের শিক্ষার্থীদের আবাসিকে হামলা চালিয়ে তাদের ধর্ষণ করে। সারা বাংলায় এক ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে পাক সেনারা। সে সময় কাতারে কাতারে মানুষ ভারতে গিয়ে আশ্রয় নেয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের নেতৃত্বে ন’ মাস রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে লাল-সবুজে খচিত স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা অর্জিত হয়।

ছিটমহলের বিলুপ্তি ঘটাতে ১৯৭৪ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে চুক্তি সই করেন। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশের সৃষ্টি হয়েছে এবং শেখ হাসিনার হাত ধরে ছিটমহল সমস্যার সমাধান হয়েছে। এরই মধ্য দিয়ে ৬৮ বছরের রুদ্ধ জীবনের অবসান ঘটেছে। বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই যুগান্তকারী পদক্ষেপ এক নয়া ইতিহাস, যা কোনো দিন বাংলার মানুষ ভুলবে না।

মুক্ত ছিটমহলের পাঁচ বছর পূর্ণ

শুধুমাত্র বাংলাদেশ-ভারতেই নয়, ২০১৫ সালের পয়লা আগস্ট ইতিহাস সৃষ্টি হল গোটা দুনিয়ায়। ৬৮টি বছর পর বন্দিদশার অবসান ঘটে ছিটমহলবাসীর। এর সঙ্গে অবসান ঘটে পাকিস্তান-ভারত সীমানা নির্ধারণের অসহনীয় পরিস্থিতির। এই কাঙ্ক্ষিত দিনটির জন্য এলাকার সাধারণ মানুষ শেখ হাসিনার জন্য বিশেষ প্রার্থনা করেন। আর বুদ্ধিজীবীরা মনে করেন, ছিটমহলের বিলুপ্তি বর্তমান সরকার প্রধান শেখ হাসিনার ঐতিহাসিক কূটনৈতিক বিজয়।

ছিটমহল সমস্যার সমাধানের পরই সেখানে উন্নয়নের কাজে হাত লাগান শেখ হাসিনা। রাস্তাঘাট, চিকিৎসা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল অর্থাৎ মানুষের প্রয়োজনে যা দরকার তার কিছুরই কমতি নেই সেখানে। এ কয়েক বছরেই পালটে গেছে অবহেলিত ছিটমহলের চিত্র।

ছিটমহলের পরিসংখ্যান

পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতের ছিটমহলে বসবাসরত লোকসংখ্যা ছিল ৩৭ হাজার এবং ভারতের অভ্যন্তরে বাংলাদেশের ছিটমহলের লোকসংখ্যা ছিল ১৪ হাজার। ২৪ হাজার ২৬৮ একর ভূমি নিয়ে দুই দেশের ছিটমহল ছিল। তার মধ্যে ভারতের জমির পরিমাণ ছিল ১৭ হাজার ১৫৮ একর এবং বাংলাদেশের ছিটমহলের জমির পরিমাণ ছিল ৭ হাজার ১১০ একর। ভারতীয় ছিটমহলগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের লালমনিরহাটে ৫৯টি, পঞ্চগড়ে ৩৬টি, কুড়িগ্রামে ১২টি ও নীলফামারিতে ৪টি। বাংলাদেশের ৫১টি ছিটমহলের মধ্যে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে ছিল ৪৭টি ও জলপাইগুড়ি জেলায় ৪টি।

দেশ

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে, বললেন ভারতীয় হাইকমিশনার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন এবং নারীর ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ভারতীয় হাইকমিশনার।

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক পরীক্ষিত। এই সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে। এই আশাই ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশনার (Indian High Commissioner) রিভা গাঙ্গুলি দাশ (Riva Ganguly Das) ।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎকালে হাইকমিশনার বলেন, দু’ দেশের সম্পর্কে অবনতি ঘটাতে কেউ কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে বিভ্রান্তিকর প্রচারণা চালিয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক (Indo-Bangla Relation) এতটা হালকা নয়। গত কয়েক বছরে দু’ দেশের মধ্যে অনেক কাজ হয়েছে। ছিটমহল সমস্যা মিটেছে, সমুদ্রসীমানা বিরোধের সমাধান হয়েছে। দু’ দেশ উন্নয়নের অংশীদার হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের (Bangladesh) অভূতপূর্ব উন্নয়ন এবং নারীর ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ভারতীয় হাইকমিশনার। তিনি মুক্তিযুদ্ধের উপর লিখিত বইয়ের হিন্দিতে অনুবাদ করার জন্য অনুরোধ করেন। ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের জনগণের আনন্দের অংশীদার হতে ভারতের ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন রিভা গাঙ্গুলি দাশ।

রিভা গাঙ্গুলি দাশ আশা করেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনারের আলোচনা হয়। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলেন দু’ জন আশা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন: শেখ হাসিনাকে নরেন্দ্র মোদীর ঈদ-শুভেচ্ছা

মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকার এবং সে দেশের জনগণের সহায়তার কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে ভারতীয় মিত্রবাহিনীর শহিদ সদস্যদের অবদান স্মরণে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে বাংলাদেশে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করার কথাও জানান মন্ত্রী।

ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের সচিব (পূর্ব) পদে শ্রীমতি গাঙ্গুলির যোগদানের জন্য অভিনন্দন এবং শুভকামনা জানিয়ে মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক আশা করেন, ওই পদে দায়িত্ব পালনের সময় দু’দেশের সুসম্পর্ক ভিন্ন মাত্রা পাবে। 

ছবি: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাশের।

Continue Reading

দেশ

চেন্নাইয়ে মজুত প্রচুর টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট, বেইরুটের ভয়াবহতায় বাড়ছে আতঙ্ক

২০১৫ থেকে চেন্নাই বন্দরে মজুত রয়েছে এই পরিমাণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট। শুল্ক দফতরের তত্বাবধানে রয়েছে এটি।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: প্রশাসনের চূড়ান্ত গাফিলতিতে ভয়াবহ ঘটনা ঘটে গিয়েছে লেবাননের রাজধানী বেইরুটে। ২,৭০০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বিস্ফোরিত হয়েছে। শহরের একটা অংশ কার্যত ধ্বংস হয়ে গিয়েছে।

বেইরুটের এই ঘটনার পর এ বার আতঙ্ক বাড়ছে চেন্নাইয়ে। কারণ এই শহরে মজুত রয়েছে ৭০০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট।

২০১৫ থেকে চেন্নাই বন্দরে মজুত রয়েছে এই পরিমাণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট। শুল্ক দফতরের তত্বাবধানে রয়েছে এটি। দফতরের আধিকারিকরা জানান, পাঁচ বছর আগে এই বিপুল পরিমাণ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বাজেয়াপ্ত করেছিল চেন্নাই বন্দর কর্তৃপক্ষ।

তামিলনাড়ুর শিবকাশীকে দেশের আতসবাজির রাজধানী বলা হয়। সেখানে বাজি তৈরির জন্যই ওই বিস্ফোরক পদার্থ নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। কিন্তু তখন সঠিক ভাবে কাগজপত্র দেখানো হয়নি বলে সেগুলিকে বন্দরেই আটকে দেয় কর্তৃপক্ষ।

তবে বন্দর কর্তৃপক্ষের দাবি, বর্তমানে এই অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বন্দরে নেই, শুল্ক দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

এই খবরটি জানাজানি হওয়ার পরেই চেন্নাইয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। যে কোনো দিন যে কোনো ধরনের ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েই যায়। এই ব্যাপারে টুইট করে পিএমকে প্রধান অম্বুমনি রামাডস বলেন, “বড়ো ধরনের বিপর্যয়ের আশঙ্কা রয়েই যায়। এই ঘটনা যাতে না হয়, সে কারণে অবিলম্বে এই বিস্ফোরককে অন্য কাজে ব্যবহার করা উচিত।”

Continue Reading

দেশ

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ওয়েবসাইট থেকে গায়েব চিনা অনুপ্রবেশ সংক্রান্ত নথি

খবরঅনলাইন ডেস্ক: প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের (Ministry of Defence) ওয়েবসাইট থেকে গায়েব হয়ে গেল চিনা অনুপ্রবেশের নথি। বৃহস্পতিবার সকালে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

মে মাসের গোড়ায় গালোয়ানে (Galwan Valley) যে ভাবে চিনা অনুপ্রবেশ ঘটেছিল, সেই সংক্রান্ত নথি বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়।

সাইটের ‘হোয়াটস্‌ নিউ’ বিভাগে ‘এলএসি-তে চিনা আগ্রাসন’ শিরোনামে লেখা হয়েছিল, ‘‘২০২০ সালের ৫ মে থেকে লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখা বিশেষত গালওয়ান উপত্যকায় চিনের হানাদারি বাড়ে। মে মাসের ১৭-১৮ তারিখে চিনারা কংরং নালা, গোগরা এবং প্যাংগং লেকের উত্তর পাড়ে এলএসি অতিক্রম করে।’’

এলএসি-তে উত্তেজনা কমাতে দু’ পক্ষের ডিভিশন এবং কোর কমান্ডার স্তরের বৈঠকের উল্লেখও ছিল উধাও হওয়া নথিতে। ছিল ১৫ জুনের গালওয়ান সংঘর্ষ এবং তার পরে ২২ জুন কোর কমান্ডার স্তরের দ্বিতীয় বৈঠক ও কূটনৈতিক স্তরের আলোচনায় মুখোমুখি অবস্থান থেকে ‘সেনা পিছনো’ (ডিসএনগেজমেন্ট) এবং ‘সেনা সংখ্যা কমানো’ (ডিএসক্যালেশন)-র প্রক্রিয়ার বিষয়ে আলোচনার প্রসঙ্গও।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবর, ওই নথিটিই বৃহস্পতিবার সকালে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ওয়েবসাইট থেকে গায়েব হয়ে যায়। সংশ্লিষ্ট লিঙ্কটিও আর কাজ করছে না। মন্ত্রকের এক আধিকারিক আজ সকালে বলেন, ‘‘আমরা এ রকম কাজ করিনি।’’

গালওয়ান সংঘর্ষের চার দিন পরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সর্বদল বৈঠকে বলেছিলেন, ‘‘ওখানে (লাদাখ) কেউ আমাদের সীমান্ত পেরিয়ে ঢুকে আসেনি। ওখানে আমাদের এলাকায় কেউ ঢুকেও বসে নেই।’’ এ বার সরকারি ওয়েবসাইট থেকেও মুছে গেল লাদাখে চিনা সেনার অনুপ্রবেশের প্রসঙ্গ।

Continue Reading
Advertisement
বাংলাদেশ12 mins ago

মেজর সিনহা হত্যা মামলা: প্রদীপ, লিয়াকত ও সাফানুর হেফাজতে

বিনোদন4 hours ago

বিজয় মাল্যর বিরুদ্ধে তদন্তকারী সিবিআই দল-ই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে!

রাজ্য4 hours ago

রাজ্যে প্রথম বার এক দিনে ২৫ হাজার টেস্ট, আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড হলেও সুস্থতার হারে স্বস্তি

প্রযুক্তি5 hours ago

হ্যাকার এবং সাইবার অপরাধীরা করোনার সুযোগ নিচ্ছে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

কেনাকাটা5 hours ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

দেশ5 hours ago

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দিন দিন আরও দৃঢ় হবে, বললেন ভারতীয় হাইকমিশনার

শিল্প-বাণিজ্য6 hours ago

ব্য়াঙ্ক চেকে জুড়ছে নতুন সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য, ঘোষণা আরবিআইয়ের

দেশ7 hours ago

চেন্নাইয়ে মজুত প্রচুর টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট, বেইরুটের ভয়াবহতায় বাড়ছে আতঙ্ক

দেশ16 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫৬২৮২, সুস্থ ৪৬১২১

গাড়ি ও বাইক1 day ago

পেট্রোলচালিত গাড়ি ‘এস-ক্রস’ বাজারে নিয়ে এল মারুতি সুজুকি

ক্রিকেট2 days ago

অঘটন! ৩২৯ তাড়া করে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারাল আয়ারল্যান্ড

ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের নিয়মাবলি: গুচ্ছের টেস্টিং, চলা-ফেরায় নিয়ন্ত্রণ, একটি দলের জন্য একটি হোটেল

দেশ2 days ago

রুপোর ইট দিয়ে রামমন্দিরের শিলান্যাস করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

ক্রিকেট2 days ago

বিতর্কের মধ্যেই আইপিএলের সঙ্গত্যাগ করল চিনা সংস্থা ভিভো

প্রযুক্তি1 day ago

শাওমি, বাইডু-সহ আরও বেশ কয়েকটি চিনা সংস্থার অ্যাপ নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র

দেশ2 days ago

আক্রান্তের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিল সুস্থতা, সক্রিয় কোভিডরোগী কমল ভারতে

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা5 hours ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা7 hours ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা1 day ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা6 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা1 week ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand