বিপদসীমায় যমুনার জল। ছবি: হিন্দুস্তান টাইমস

নয়াদিল্লি: অবিরাম বর্ষণের ফলে বন্যার ভ্রূকুটি দেখা দিয়েছে দিল্লি এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। যমুনার জলের স্তর বেড়ে যাওয়ায় সাময়িক ভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছ ট্রেন চলাচলও।

গত কয়েকদিন ধরেই প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে উত্তর ভারতে। এর ফলে ক্রমশ বাড়ছে উত্তরের নদীগুলির জলের স্তর। রবিবার রাতের পরে যমুনার জলের স্তর এতটাই বেড়ে যায় যে হাওড়া-দিল্লি রুটে পুরনো যমুনা ব্রিজের ওপর দিয়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ করার ঘোষণা করে রেল। ওই রুট দিয়ে চলাচল করা ২৭টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন বাতিল করে দেওয়া হয়, ঘুরিয়ে দেওয়া হয় ৭টা দুরপাল্লার ট্রেন। জানা গিয়েছে গত পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছেছে যমুনার জলের স্তর।

শুধু ট্রেন চলাচলই বন্ধ নয়, যমুনার তীরবর্তী দিল্লির নিচু এলাকা থেকে অন্তত তিরিশ হাজার বাসিন্দাকে নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে। শুধু দিল্লিই নয়, বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে হরিয়ানাতেও। রবিবার হরিয়ানার হাতনিকুন্ড জলাধার থেকে প্রচুর পরিমাণে জল ছাড়া হয়েছে। সোমবার রাতের মধ্যে দিল্লির কাছাকাছি সেই জল পৌঁছলে বন্যা পরিস্থিতি আরও ঘোরালো হয়ে উঠতে পারে।

পরিস্থিতির দিকে কড়া নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর। এ সবার মধ্যে চিন্তা বাড়িয়েছে আগামী কয়েকদিনের পূর্বাভাস, যেখানে জানানো হয়েছে নতুন নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার ফলে বৃষ্টি আরও বাড়তে পারে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here