সুস্থ গণতন্ত্রের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার স্বাধীনতা হরণ করা অনুচিত: অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামাজিক গণমাধ্যমে যে কোনো ধরনের আলোচনার স্বাধীনতা থাকা প্রয়োজন। সেটাই সুস্থ গণতন্ত্রের পক্ষে ভালো। এনডিটিভিকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে এমনই জানিয়েছেন দেশের অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল।

বেণুগোপাল বলেছেন, ‘‘যে কোনো সুস্থ গণতন্ত্রের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার আলোচনায় কোনো রকম বাধা সৃষ্টি করা উচিত নয়। দেশের সর্বোচ্চ আদালত, অর্থাৎ সুপ্রিম কোর্টও বিরল থেকে বিরলতর ঘটনা ছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ার আলোচনায় হস্তক্ষেপ করে না।’’

সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো রকম নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করাও ‘অপ্রয়োজনীয়’ বলে মনে করেন তিনি। এমন কোনো আইন সরকারের আনা উচিত নয় বলে সাফ কথা বেণুগোপালের।

বেণুগোপালের কথায়, দেশে উন্মুক্ত গণতন্ত্র প্রয়োজন। যেখানে আলোচনার পরিসর থাকতেই হবে। তার মধ্যেও যদি কোনো ঘটনা ঘটে, যাতে আইনি পদক্ষেপ করা প্রয়োজন, তা হলে সর্বোচ্চ আদালত সেটা করবে।

আদালত অবমাননা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের সামগ্রিক ভূমিকা সম্পর্কে বেণুগোপাল বলেছেন, ‘‘যতক্ষণ না পর্যন্ত কোনো বিষয় আদালত অবমাননার দিকে যাচ্ছে, ততক্ষণ আদালত সে বিষয়ে কিছু করবে না। সুপ্রিম কোর্ট বিরল থেকে বিরলতর ক্ষেত্রে আদালত অবমাননার মামলা করে।’’

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ভিস্তা প্রকল্প নিয়ে ‘অতি উদ্যোগী’, কেন্দ্রকে তিরস্কার সুপ্রিম কোর্টের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন