নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্ট এবং বিভিন্ন হাইকোর্টের বেশ কয়েকজন কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে দুর্নীতির অভিযোগ করা ও প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লেখার অভিযোগে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সি এস কারনানের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি কে এইচ খেহরের নেতৃত্বে শীর্ষ আদালতের সাত জন সবচেয়ে সিনিয়র বিচারপতির এক বেঞ্চ বুধবার এই সিদ্ধান্ত  নিয়েছে। কারনানকে ১৩ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টে হাজির থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আদালতের সব রকম কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে তাঁকে। 

গত ২৩ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে একটি চিঠি লেখেন কারনান। চিঠির বিষয় ছিল ‘বিচার ব্যবস্থায় ব্যাপক দুর্নীতি’। সেখানে ২০ জন ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ বিচারপতির একটি ‘প্রাথমিক তালিকা’-ও দেন তিনি। 

lineএর আগেও বেশ কিছু বিতর্কে জড়িয়েছেন বিচারপতি কারনান। মাদ্রাজ হাইকোর্টের বিচারপতি থাকাকালীন তিনি নিজের বদলির নির্দেশ স্থগিত করে দিয়েছিলেন। বদলির নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টের কলেজিয়াম। দেশের প্রধান বিচারপতির কাছে বদলির নির্দেশের ব্যাখ্যাও চেয়েছিলেন তিনি। তৎকালীন মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে মামলাও শুরু করেছিলেন। তাঁর অভিযোগ ছিল, তিনি দলিত বলেই তাঁকে হেনস্থা করা হচ্ছে।

সে সময় শীর্ষ আদালত তাঁকে কোনো রায় দেওয়া থেকে আটকে দিয়েছিল। রাষ্ট্রপতি সময়সীমা নির্দিষ্ট করে দেওয়ার পর তিনি কলকাতা হাইকোর্টে যোগ দেন।

মাদ্রাজ হাইকোর্টের তৎকালীন বিচারপতি সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি হিসেবে যোগ দিয়েছেন।  

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন