লখনউ: গ্রেফতার হলেন ভোপাল-উজ্জইন ট্রেন বিস্ফোরণের ‘মূল চক্রী’ জি এম খান। উত্তরপ্রদেশের সন্ত্রাস বিরোধী বাহিনী অর্থাৎ অ্যান্টি টেররিস্ট স্কোয়াড (এটিএস) বৃহস্পতিবার লখনউ থেকে গ্রেফতার করে জিএম খান ও আরও এক সন্দেহভাজনকে। তাদের মধ্যে জি এম খান ভারতীয় বিমান বাহিনীর প্রাক্তন কর্মী।উত্তরপ্রদেশের এডিজি দলজিত চৌধুরী সংবাদমাধ্যমকে এই খবর জানিয়েছেন। 
ভোপাল-উজ্জইন ট্রেনে জঙ্গি হামলার ঘটনার তদন্ত করবে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ। গত বুধবার উত্তরপ্রদেশ পুলিশের গুলিতে নিহত হন সন্দেহভাজন জঙ্গি সইফুল্লা। গ্রেফতার হন আরও ৬ জন। এই প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ বলেন, “রাজ্য পুলিশ এবং কেন্দ্রীয় সংস্থার মধ্যে অভূতপূর্ব সমন্বয়ের ফলে দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তাকে অনেকটা সুনিশ্চিত করা গেল”। রাজনাথ আরও জানিয়েছেন, সইফুল্লার বাসস্থান থেকে ৮টি পিস্তল, ৬৩০টি কার্টরিজ, নগদ দেড় লক্ষ টাকা, তিনটে  মোবাইল ফোন এবং চারটে সিম কার্ড পাওয়া গিয়েছে।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন