piyush goyal

নয়াদিল্লি: টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটর, ওয়াশিং মেশিন-সহ বিভিন্ন বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, সুগন্ধি এবং বেশ কিছু হস্তশিল্পজাত দ্রব্য সস্তা হল। এই সব দ্রব্যের ওপর জিএসটি অনেকটাই কমিয়ে দেওয়া হল। এ ছাড়াও স্যানিটারি ন্যাপকিনের ওপর থেকে জিএসটি পুরোপুরি তুলে নেওয়া হল। শনিবার জিএসটি কাউন্সিল এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়। এই সব পণ্যে জিএসটি কমিয়ে দেওয়ার ফলে আসন্ন উৎসবের মরশুমে লক্ষ লক্ষ ক্রেতা, ছোটো ব্যবসায়ী এবং শিল্পীরা উপকৃত হবেন।

গত বছর কাউন্সিল স্যানিটারি ন্যাপকিনের ওপর ১২ শতাংশ হারে জিএসটি বসায়। এই জিএসটি বসানোর পরই বিভিন্ন নারী ও ক্রেতা সংগঠনের তরফে তীব্র আপত্তি জানানো হয়েছিল।

শনিবার জিএসটি কাউন্সিল যা ঘোষণা করেছে তাকে এক রকম মিনি বাজেট বলা যেতে পারে। টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটর, ওয়াশিং মেশিন, লিথিয়াম ব্যাটারি, ভ্যাকুয়াম ক্লিনার, মিক্সার, গ্রাইন্ডার, ওয়াটার হিটার, ফুড প্রসেসর, হেয়ার ড্রায়ার, ওয়াটার কুলার, আইসক্রিম ফ্রিজার, ইলেকট্রিক ইস্ত্রি, সুগন্ধি, পাউডার পাফ ও কসমেটিক্সের ওপর জিএসটি ২৮ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১৮ শতাংশ করে দেওয়া হল। পাথর, মার্বেল ও কাঠের বিগ্রহ, দামি পাথর ছাড়া রাখি, স্মারক মুদ্রা পুরোপুরি জিএসটি-মুক্ত করে দেওয়া হল বলে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পীযূষ গয়াল জানিয়েছেন।

১০০০ টাকার কম দামের হাতে বোনা টুপিতে এখন থেকে জিএসটি লাগবে ৫ শতাংশ। চামড়ার সমস্ত দ্রব্যে জিএসটি দিতে হবে ১৮ শতাংশ হারে এবং ১০০০ টাকার কম দামের চটি-জুতোয় ৫ শতাংশ হারে জিএসটি ধার্য করা হল। হাতব্যাগ, জুয়েলারি বাক্স, কাঠের ফোটো ফ্রেম, আয়নার আলংকারিক ফ্রেম, হাতে তৈরি কার্পেট এবং পাথর, অ্যালুমিনিয়াম ও কাচের শিল্পকর্মে জিএসটি ১২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : স্যানিটারি ন্যাপকিন কিনতে আর জিএসটি নয়, যদিও কর রয়ে গেল প্রস্তুতে

পেট্রোল ও ডিজেলে যাতে আরও বেশি করে ইথানল মেশানো যায় তার জন্য ইথানলের ওপর জিএসটি ১৮ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করে দেওয়া হয়েছে। বাড়ি তৈরি এবং ঘর সাজানোর বেশ কিছু দ্রব্যে জিএসটি কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।

জিএসটি কমানোর এই সিদ্ধান্ত ২৭ জুন থেকে কার্যকর হচ্ছে বলে অর্থমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here