‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ থেকে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’: মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে মুখ খোলার আর্জি লোকসভায়

0
narendra modi
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার লোকসভায় দাঁড়িয়ে দেশজোড়া মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশে মুখ খোলার আর্জি জানালেন লোকসভার বিরোধী নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী।

অধীর বলেন, “আশ্চর্যজনক ভাবে প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়টি (নারী নিগ্রহ) নিয়ে নিশ্চুপ রয়েছেন। তিনি সবকিছু নিয়েই কম-বেশি বলেন। কিন্তু মহিলাদের প্রতি অপরাধের বিষয়টি নিয়ে কোনো কথা বলছেন না। আসলে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ থেকে ভারত ধীরে ধীরে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়ার দিকে এগোচ্ছে”।

তেলঙ্গানার হায়দরাবাদ থেকে শুরু করে উত্তরপ্রদেশের উন্নাও-সহ একের পর এক ঘটনায় মহিলাদের উপর আক্রমণের বহর ক্রমশ তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠছে বলে উল্লেখ করে অধীর বলেন, প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়টি নিয়ে কেন মুখ খুলছেন না।

Adhir Ranjan Chowdhury
ফাইল ছবি

প্রসঙ্গত, গত সোমবার কর্নাটকের ১৫টি আসনের উপনির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরই সে রাজ্যের বিজেপির সরকারের স্থায়িত্ব প্রমাণিত হয়ে যাওয়ার পরই কংগ্রেস-জেডি(এস)-কে একহাত নেন মোদী। পিছন দরজা দিয়ে ওই জোট কর্নাটকের ক্ষমতা দখল করেছিল বলে দাবি করেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: ফের অনার কিলিং! মেয়েকে খুন করে টুকরো টুকরো করল বাবা ]

একই সঙ্গে ঝাড়খণ্ডের হাজারিবাগের ওই প্রচারসভা থেকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কিছু লোক বলত দক্ষিণে বিজেপির প্রভাব সীমিত। তবে উপনির্বাচনে কর্নাটকের মানুষ তাদেরকে গণতান্ত্রিক উপায়ে হারিয়ে শাস্তি দিয়ে দিয়েছে। কর্নাটকে পেছনের দরজা দিয়ে জনাদেশ চুরি করেছিল কংগ্রেস। মানুষ এখন সেই দলকে সবক শিখিয়েছে”।

বিরোধীদের দাবি, হায়দরাবাদে তরুণী পশুচিকিৎসকের গণধর্ষণ এবং হত্যাকাণ্ড এবং তার পরে অভিযুক্তদের এনকাউন্টারে মৃত্যু অথবা উন্নাওয়ের ২৪ বছর বয়সি নির্যাতিতা তরুণীকে আগুনে পুড়িয়ে মেরে ফেলার নৃশংস ঘটনা নিয়ে মুখ খুলতে শোনা যায়নি মোদীকে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.