নয়াদিল্লি: রাজনৈতিক অনুদান দেওয়ার ক্ষেত্রে কর্পোরেট সংস্থাগুলোর ওপর থেকে তুলে নেওয়া হল সবরকম ঊর্ধ্বসীমা। বুধবার লোকসভায় পাশ হওয়া অর্থ বিলের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল রাজনৈতিক অনুদান। এতদিন পর্যন্ত কোনো সংস্থার পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলকে অনুদান দেওয়ার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বার্ষিক সীমা ছিল সংস্থার শেষ তিন বছরের মোট আয়ের বার্ষিক গড়ের ৭.৫% পর্যন্ত। রাজনৈতিক দলের নাম প্রকাশও এতদিন বাধ্যতামূলক ছিল। দুটি শর্তের কোনোটিই থাকছে না সদ্য পাশ হওয়া অর্থ বিলে।

আরও পড়ুন: আয়কর রিটার্নে বাধ্যতামূলক আধার নম্বর, লোকসভায় পাশ অর্থ বিল

২০১৭-র অর্থ বিলে ৪০টিরও বেশি সংশোধনের উল্লেখ রয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি সংশোধন, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর  ১ ফেব্রুয়ারির বাজেট ঘোষণার থেকে অনেকটাই অন্যরকম।

নতুন অর্থ বিল অনুযায়ী, যেকোনো রাজনৈতিক অনুদান চেক, ডিমান্ড ড্রাফট অথবা ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে হওয়া বাধ্যতামূলক। নির্দিষ্ট সংস্থার অনুদানের মোট অঙ্ক প্রকাশ করাও আবশ্যক। নতুন বিল কার্যকর করতে সংশোধন করা হবে কেন্দ্রের কোম্পানি আইন।   

সদ্য পাশ হওয়া ‘অর্থ বিল ২০১৭’ অনুযায়ী, প্যান এবং আয়কর রিটার্নের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক হচ্ছে আধার নম্বর। অর্থমন্ত্রী জেটলি এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, আয়কর ফাঁকি দেওয়া রুখতেই কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ। 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন