গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে ‘দেশপ্রেমিক’ বলে বিপাকে পড়লেন বিজেপি প্রার্থী

Mahatma Gandhi
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে এক জন ‘দেশভক্ত’ হিসাবেই ফের তুলে ধরলেন মধ্যপ্রদেশের ভোপালের বিজেপি প্রার্থী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর। তাঁর ‘বিতর্কিত’ মন্তব্যের তালিকায় নয়া সংযোজন করে তিনি বলেন, “গান্ধীকে হত্যাকারী নাথুরাম গডসে এক জন দেশভক্ত ছিলেন, এবং থাকবেনও”। এহেন মন্তব্যের পরেই দলের অন্দরেই বিপাকে পড়েন প্রজ্ঞা।

দক্ষিণী অভিনেতা তথা রাজনীতিক কমল হাসন সম্প্রতি মন্তব্য করেন, “স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী ছিলেন এক জন হিন্দু”। তাঁর সেই মন্তব্য নিয়ে দেশজোড়া বিতর্কের সৃষ্টি হয়। এ দিন কমলের মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়েই প্রজ্ঞা নাথুরামকে ‘দেশভক্ত’ হিসাবে বর্ণনা করেন।

Sadhvi-Pragya

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালে মালেগাঁও বিস্ফোরণকাণ্ডে অভিযুক্ত প্রজ্ঞাকেও বিরোধীরা হিন্দু সন্ত্রাসবাদী হিসাবে তোপ দেগে থাকেন। বর্তমানে জামিনে থাকা প্রজ্ঞাকেই লোকসভা ভোটে প্রার্থী করার পর সেই অভিযোগ আরও জোরালো হয়েছে। একই সঙ্গে রামমন্দির-সহ একাধিক ইস্যুতে প্রজ্ঞার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নিয়েছে নির্বাচন কমিশনও।

সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, প্রজ্ঞা বলেন, “নাথুরাম গডস এক জন দেশভক্ত ছিলেন, একজন দেশভক্ত আছেন এবং দেশভক্ত থাকবেন। তাঁকে সন্ত্রাসী বলে ডাকার পরিবর্তে তাঁর কাজের দিকে তাকানো উচিত। যাঁরা তাঁকে সন্ত্রাসবাদী বলেন, তাঁদের এ বারের ভোটে উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে”।

এর পরই শেষ দফার ভোটের আগে এহেন মন্তব্যে দলীয় অন্দর মহলে তৈরি হয় বিতর্কের। এ ধরনের মন্তব্যের জন্য তাঁকে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিজেপি মুখপাত্র জি ভি এল নরসিমা রাও জানান, “বিজেপি এই ধরনের মন্তব্যকে সমর্থন করে না। আমরা নিন্দা করছি। জনসমক্ষে এ ধরনের মন্তব্য করার জন্য দল তাঁকে ক্ষমা চাইবার নির্দেশ দেবে”।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.