Chhota Rajan Convicted For Journalist J Dey's Murder

ওয়েবডেস্ক: সাংবাদিক জ্যোতির্ময় দে হত্যাকাণ্ডে সাজা ঘোষণা করল মহারাষ্ট্রের মোকা আদালত। গ্যাংস্টার ছোটা রাজন-সহ নয় অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত তাদের যাবজ্জীবন কারাবাসের সাজা দিল বুধবার।

২০১১ সালের ১১ জুন প্রকাশ্য দিবালোকে মুম্বইয়ে গুলি করে মারা হয় জ্যোতির্ময়কে। সে সময় তিনি মিড ডে পত্রিকায় কর্মরত। পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে উঠে আসে আর এক সাংবাদিক জিগনা ভোরার নাম। বলা হয়, সংবাদ মাধ্যমের পেশাদারি প্রতিযোগিতার আক্রোশে ভোরা খুন করাতে পারেন জ্যোতির্ময়কে। কিন্তু ভোরার বিরুদ্ধে উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ না পেয়ে তাঁকে বেকসুর খালাস করে আদালত।

বুধবার আদালত জানায়, ৫৬ বছরের জ্যোতির্ময়কে খুন করানোর মূল ষড়যন্ত্রী আদতে ছোটা রাজন। মুম্বইয়ে ছোটা রাজনের কার্যকলাপ নিয়ে কলম ধরার প্রয়াস নিতেই তাঁকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করে রাজন। উল্লেখ্য, ২০ জন কুখ্যাত দুষ্কৃতীকে নিয়ে জ্যোতির্ময় সে সময় একটি সংকলন প্রকাশে হাত দিয়েছিলেন। যার নাম ‘চিন্ডি- র‍্যাগস অ্যান্ড রিচেস’।

সে খবর ছোটা রাজনের কানে পৌঁছনোর পরই ওই প্রবীণ সাংবাদিকের উপর চরম প্রতিশোধ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে সে। দু’টি  মোটরবাইকে চেপে চার জন দুষ্ক‌ৃতী এলোপাথাড়ি গুলি চালায় জ্যোতির্ময়ের উপর। বাজারের সিসিটিভি ক্যামেরায় সেই দৃশ্য বন্দি হলেও আততায়ীদের নাগাল পেতে পুলিশকে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। এরই মাঝে উঠে আসে ভোরার নাম। কিন্তু ঘটনার তদন্ত যতই এগোয় ধীরে ধীরে খুলতে থাকে জটের উৎস। ইন্দোনেশিয়ার বালি থেকে ২০১৫ সালের নভেম্বরে রাজনকে ভারতে নিয়ে আসার পরই তাকে এই মামলার সঙ্গে সংযুক্ত করা হয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here