উত্যক্ত করার শাস্তি, ক্যারাটের কিকে অভিযুক্ত পুলিশকর্মীকে ঘায়েল করলেন তরুণী

0
225
rape haryana dalit

ওয়েবডেস্ক: রামপুরহাটের ছবি এ বার হরিয়ানার রোহতকে। উত্যক্ত করার শাস্তি হিসেবে পুলিশকর্মীকে শায়েস্তা করলেন ক্যারাটে প্রশিক্ষিত তরুণী।

কিছু দিন আগেই রামপুরহাটে উত্যক্ত করা কয়েকটি ছেলেকে তায়কোন্ডোর কিকে শায়েস্তা করেছিল এক কিশোরী। অনেকটা সে রকম কাজই করে ফেললেন রোহতকের ওই তরুণী। তবে এ ক্ষেত্রে উত্যক্ত করায় অভিযুক্ত স্বয়ং এক পুলিশকর্মী।

বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি ফেরার জন্য অটোয় উঠেছিলেন এক তরুণী। একটু দূরে যাওয়ার পরে অটোচালক কিছুক্ষণের জন্য অটো দাঁড় করিয়ে কাছের দোকানে কিছু জিনিস কিনতে গিয়েছিলেন। এই সুযোগে ওই অটোয় উঠে পড়েন এক পুলিশকর্মী। তরুণীকে একা পেয়ে সমানে উত্যক্ত করা শুরু করেন তিনি।

ওই তরুণী বলেন, “ওই পুলিশকর্মী বলছিলেন তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্ব করতে, মোবাইল নম্বর দিতে। আমাকে বাজে ভাবে ছোঁয়ারও চেষ্টা করছিলেন তিনি। আমি বারবার তাঁকে থামতে বলছিলাম কিন্তু তিনি শোনেননি।”

এর পর আর ধৈর্য ধরে রাখতে পারেননি ওই তরুণী। ক্যারাটে প্রশিক্ষিত ওই তরুণী বেমালুম কয়েকটি পাঞ্চ এবং কিক চালিয়ে দেন পুলিশকর্মীর গায়ে। ওই পুলিশকর্মী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও ঘাড় ধরে তাঁকে অটোতেই বসিয়ে রাখেন তরুণী। অটোচালক ফিরে এলে তাঁকে অনুরোধ করেন মহিলা থানায় নিয়ে যেতে। তাঁর কথায়, “ট্রাফিকের জন্য অটো যখনই আস্তে চলছিল তখনই পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন তিনি। কিন্তু আমি সেটা হতে দিইনি।”

মহিলা থানায় প্রথমে ওই তরুণীর অভিযোগ নিতে চাওয়া হয়নি বলে জানা গিয়েছে। অভিযুক্ত পুলিশকর্মীর সঙ্গে সমস্যা মিটমাট করে নেওয়ার অনুরোধ করা হচ্ছিল ওই তরুণীকে। অভিযুক্ত পুলিশকর্মী ওই তরুণীর পা ধরে ক্ষমা চাওয়ায় ওই তরুণীও মামলা প্রত্যাহার করে নেন।

কিন্তু শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়, যেখানে দেখা যায় ওই তরুণীর পায়ে হাত ধরে ক্ষমা চাইছেন ওই পুলিশকর্মী। এর পরেই ওই তরুণীর বয়ান রেকর্ড করে মহিলা থানা। রোহতকের পুলিশ সুপার পঙ্কজ নয়ন বলেন, “এফআইআরের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁকে সাসপেনশনেও রাখা হয়েছে।”

২১ বছর বয়সি ওই তরুণী জেলা এবং রাজ্য স্তরের ক্যারাটে প্রতিযোগিতায় সোনা পেয়েছেন এবং জাতীয় স্তরে রুপোও রয়েছে তাঁর।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here