গীতা গোপীনাথ থেকে করুণা নন্দী, ভারতের ক্ষমতাশালী ৭ নারী

0

কলকাতা: ভারতের রাজনীতি, অর্থনীতি, সাংস্কৃতিক-সহ যাবতীয় ক্ষেত্রে কোনো অংশেই পিছিয়ে নেই মহিলারা। দেখে নেওয়া যাক, ২০২২-এ ভারতের ক্ষমতাশালী সাত নারীর সংক্ষিপ্ত পরিচয়।

গীতা গোপীনাথ

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (IMF) ডিরেক্টর গীতা গোপীনাথ (Gita Gopinath)। ২০২২ সালের ২১ জানুয়ারি থেকে তিনি এই আন্তর্জাতিক তহবিল সংস্থার প্রথম ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর। এ ছাড়াও, ন্যাশনাল ব্যুরো অব ইকোনমিক রিসার্চের ইন্টারন্যাশনাল ফিনান্স এবং ম্যাক্রো ইকোনমিক্স প্রোগ্রামের কো-ডিরেক্টর। তাঁর উল্লেখযোগ্য কৃতিত্ব হল ২০২১ সালে ফিনান্সিয়াল টাইমস-এর “বছরের সবচেয়ে প্রভাবশালী ২৫ মহিলা”র তালিকায় জায়গা করে নেওয়া।

রোশনি নাদর মলহোত্র

সম্প্রতি ভারতের সবচেয়ে ধনী ১০০ মহিলার তালিকা প্রকাশ করেছে কোটাক প্রাইভেট ব্যাঙ্কিং হুরুন। এই নিয়ে পর পর দু’বছর ভারতের সবচেয়ে ধনী মহিলার শিরোপা পেয়েছেন এইচসিএল টেকনোলজিস-এর উত্তরাধিকারী রোশনি নাদর মলহোত্র (Roshni Nadar Malhotra)। তাঁর মোট সম্পদের পরিমাণ ৮৪ হাজার ৩৩০ কোটি টাকা।

ড. সৌম্যা স্বামীনাথন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্যা স্বামীনাথন ( Dr. Soumya Swaminathan)। এইচআইভি ভাইরাস এবং যক্ষ্মা নিয়ে সফল গবেষণার জন্য জনপ্রিয়। গ্লোবাল হেলথ সামিটের বৈজ্ঞানিক প্যানেলের সদস্যও ছিলেন। পেয়েছেন অংসখ্য পুরষ্কার। ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন অফ অ্যাপ্লাইড মাইক্রোবায়োলজিস্টের আজীবন কৃতিত্ব পুরস্কার বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য।

লীনা নায়ার

ব্রিটিশ-ভারতীয় ব্যবসায়িক বিশ্বে উল্লেখযোগ্য ভাবে একটি ফ্রেঞ্চ ফ্যাশন হাউস চ্যানেলের প্রথম এবং সর্বকনিষ্ঠ মহিলা গ্লোবাল চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসারের মুকুট উঠেছে লীনা নায়ারের মাথায়। এর আগে হিন্দুস্তান ইউনিলিভারে কাজ করেছেন। ফরচুন ইন্ডিয়ার সবচেয়ে ক্ষমতাশালী নারী ২০২১-এর তালিকায় স্থান পেয়েছেন। এ ছাড়াও, ২০২১ সালের গ্রেট ব্রিটিশ বিজনেস উইমেন অ্যাওয়ার্ডে রোল মডেলের খেতাব জিতেছেন লীনা নায়ার (Leena Nair)।

জারিন দারুওয়ালা

২০১৬ সালে ভারতে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাঙ্কের দায়িত্ব নেন জারিন দারুওয়ালা (Zarin Daruwala)। সে সময় ওই ব্যাঙ্ক অভূতপূর্ব লোকসানে জর্জরিত। বেঁচে থাকার জন্য চলছে অসম লড়াই। জারিনের দৃঢ় নেতৃত্ব, কৌশল এবং কাজের মানোন্নয়ের কারণে ২০২০ সালে ব্যাঙ্ক নিজের গোষ্ঠীর বিশ্বব্যাপী লাভের ক্ষেত্রে দ্বিতীয় বৃহত্তম অবদানকারী হয়ে যায়।

কাকু নাখাতে

ব্যাঙ্ক অব আমেরিকা, ইন্ডিয়ার চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন কাকু নাখাতে (Kaku Nakhate)। ভারতের যে কোনো বিদেশি ব্যাঙ্কে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে নেতৃত্বে থাকা মহিলা তিনিই। তাঁর নেতৃত্বে ব্যাঙ্কের স্থায়ী আয় উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ছাড়া বিদেশি মুদ্রাভাণ্ডার আরও শক্তিশালী হয়েছে। অতিমারি পরিস্থিতিতে, সারা বিশ্বের ব্যাঙ্কগুলিকে নিয়ে এক সঙ্গে কাজ করার জন্য তাঁর প্রচেষ্টা ছিল উল্লেখযোগ্য।

করুণা নন্দী

বিখ্যাত আইনজীবী লীনা নন্দী (Karuna Nundy)। ২০১২ সালের দিল্লি গণধর্ষণ মামলার পরে ধর্ষণবিরোধী আইনের খসড়া তৈরিতে অনবদ্য প্রচেষ্টার জন্য পরিচিত। ইতিবাচক অবদান এবং অন্যায়ের প্রতিকারে তাঁর ভূমিকা উল্লেখযোগ্য। যা তাঁকে অন্য আইনজীবীদের থেকে পৃথক পরিচিতি এনে দিয়েছে। এই কৃতিত্বের জন্য ২০২০ সালে ফোর্বসের সেল্ফ মেড উইমেন তালিকায় নিজের স্থান পাকা করেন করুণা। এ ছাড়াও মিন্টের “এজেন্ট অফ চেঞ্জ” এবং ফোর্বসের “মাইন্ড দ্যাট ম্যাটারস” শিরোনামও অর্জন করেছেন।

আরও পড়তে পারেন: 

স্যুট না পরলেও ভারতীয় কর্পোরেট জগতের উজ্জ্বল নক্ষত্র রাধা বেম্ভু

স্টার্টআপে উজ্জ্বল খুশবু জৈন, উদ্ভাবনীতে নারীশক্তির সাফল্য

ইচ্ছে আর আত্মবিশ্বাসে ভর করে এগোচ্ছে ভারতের নারীশক্তি, উদাহরণ অরুন্ধতী ভট্টাচার্য

কোনো অংশে পিছিয়ে নেই ভারতের নারীশক্তি, দৃষ্টান্ত ফাল্গুনী নায়ার

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন