income tax

নয়াদিল্লি: করদাতাদের জন্য কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বিশেষ একটি সুখবর শোনাতে পারেন আগামী বাজেটে। সাধারণ মানুষকে সঞ্চয়ে আরও বেশি আগ্রহী করে তুলতে এই বাজেটে বাড়ানো হতে পারেন আয়কর আইনের ৮০ (সি) ধারায় বিনিয়োগের পরিমাণ।

এই ধারা অনুযায়ী কোনো ব্যক্তির মোট আয়ের থেকে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত কর বহির্ভুত হিসাবে গণ্য করা হতো। নিয়মে উল্লেখিত বেশ কিছু আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ওই টাকা যদি গচ্ছিত রাখা হয়, তা হলে ওই আয়ের জন্য কাউকেই অতিরিক্ত কর দেওয়ার প্রয়োজন হয় না। ২০১৪-১৫ আর্থিক বছরে ৫০ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে এই বিনিয়োগের পরিমাণ করা হয়েছিল দেড় লক্ষ টাকা। তারপর ২০১৬-’১৭ এবং ২০১৭-’১৮ আর্থিক বছরেও এই বিনিয়োগের ঊর্ধ্বসীমা পরিবর্তন হয়নি। তবে আগামী ২০১৮-’১৯ আর্থিক বছরে তাতে বদলে ঘটতে চলেছে বলে সূত্রের খবর। প্রাথমিক ভাবে সরকার স্থির করেছে ৮০(সি)-তে বিনিয়োগের ঊর্ধ্বসীমা করা হবে দু’লক্ষ টাকা।

ঠিক কোন কোন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে টাকা বিনিয়োগ করলে ৮০(সি) ধারায় কর ছাড় পাওয়া যায়, জেনে নিন-

♦ পিপিএফ ♦ পিএফে কর্মীর অংশ ♦ এনএসসিএস ♦ এলআইসি ♦ সন্তানের পড়াশোনার খরচ ♦ গৃহঋণের প্রিন্সিপাল পেমেন্ট ♦ সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা ♦ ইউএলআইপিএস ♦ ইএলএসএস ♦ বিলম্বিত বার্ষিক বৃত্তি ♦ পাঁচ বছরের বিনিয়োগ প্রকল্প ♦ প্রবীণ নাগরিক সঞ্চয় প্রকল্প ♦ নোটিফায়েড সিকিউরিটি/ ডিপোজিট প্রকল্প ♦ নোটিফায়েড পেনশন ফান্ড, কোনো মিউচুয়াল ফান্ড বা ইউটিআই ♦ ন্যাশনাল হাউজিং ব্যাঙ্কের ঋণ। অন্যান্য স্বীকৃত হাউজিং ফিন্যান্স সংস্থার প্রকল্প ♦ ইক্যুইটি শেয়ার/ডিবেঞ্চার ♦ নাবার্ডের নোটিফায়েড বন্ড

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন