নয়াদিল্লি : কোনো মন্ত্রী-আমলার গাড়িতেই লালবাতি ব্যবহার করা যাবে না। এমন নির্দেশ দিল কেন্দ্র। বুধবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের ১ মে থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। বলা হয়েছে, লালবাতি ব্যবহার হবে শুধু রাষ্ট্রপতি, উপরাষ্ট্রপতি, দেশের প্রধান বিচারপতি-সহ অ্যাম্বুলেন্স, দমকল, পুলিশের গাড়ি ও আপদকালীন যানবাহন ও এনফোর্সমেন্ট সংস্থার গাড়িতেই। প্রধানমন্ত্রীর দফতর সূত্রে খবর, প্রায় দেড় বছর পড়ে থাকার পর অবশেষে এই সিদ্ধান্তে এলো কেন্দ্র। পরিবহনমন্ত্রী নিতিন গড়করি জানান, এটি একটি ঐতিহাসিক গণতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত।

পরিবহনমন্ত্রী বলেন, সাধারণ মানুষের মনে এই লালবাতি ব্যবহারকারীদের নিয়ে একটা ক্ষোভ কাজ করে। তা ছাড়া এই লালবাতিওয়ালা গাড়ির অনেক ভুলভাল ব্যবহার করে থাকেন ক্ষমতাশালীরা। এই সমস্ত বিষয়ে মানুষের মতামত শুনেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সকলকে স্বেচ্ছায় এই লালবাতি গাড়ি থেকে খুলে ফেলতে বলেন, গড়করি।

পরিবহনমন্ত্রক সূত্রে খবর, গত সপ্তাহে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে আলোচনার পর প্রধানমন্ত্রীর দফতরে তিনটি পরামর্শ দেন তাঁরা। তার মধ্যে এটি একটি।

দৃষ্টান্তমূলক ভাবে, সরকার এই সিদ্ধান্তে আসার পরই পরিবহনমন্ত্রী নিজের গাড়ির লালবাতি খুলে ফেলেন।

প্রসঙ্গত, দিল্লিতে আম আদমি পার্টির সরকার প্রথম এই লালবাতির ব্যবহার বন্ধ করে। এর পর পঞ্জাবের অমরিন্দর সিং-এর সরকার এই পথে হাঁটে। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সিদ্ধান্তে রাজ্যের মন্ত্রী-আমলাদের লালবাতির ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here