government is unlikely to pay arrears on hiked pay

নয়াদিল্লি: অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি সংক্রান্ত ঘোষণা করতে পারেন এ বারের বাজেটে। সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ মেনেই তিনি ওই বেতন বৃ্দ্ধিতে সরকারি বক্তব্য পেশ করবেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত খবর রয়েছে, শুধু মাত্র স্বল্প বেতনের কর্মীরাই ওই বর্ধিত বেতন পাবেন সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী। অন্য দিকে বেতন বৃদ্ধির জন্য যে টাকা বকেয়া হবে, সেই বকেয়া টাকা সম্পর্কে ২০১৮-র বাজেটে তেমন কোনো সুখবর শোনানোর পরিকল্পনা আপাতত স্থগিত রাখতে পারে কেন্দ্র।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম মারফত আগেই জানা গিয়েছিল, ২০১৮-১৯ বাজেট অধিবেশনেই কেন্দ্র বর্ধিত হারে বেতন দেওয়ার জন্য অর্থ বরাদ্দ করবে। সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ মেনেই যে কেন্দ্র তা বরাদ্দ করতে চলেছে, সে কথাও জানানো হয়। কিন্তু ওই সুপারিশে ঠিক যে ভাবে ওই বেতন বৃদ্ধির কথা বলা হয়েছে সম্ভবত কেন্দ্র সেটাই অনুসরণ করতে চাইছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী এপ্রিল মাস থেকেই স্বল্প বেতনের কর্মীরা ওই বর্ধিত হারে বেতন পেতে পারেন। কিন্তু উচ্চ বেতনের কর্মীরা তা থেকে বঞ্চিত হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্বল্প বেতনের কর্মীদের সঙ্গে আধিকারিক পদের কর্মীদের বেতনের ফারাক চওড়া হওয়ায় দীর্ঘ দিন ধরেই সরকারি কর্মীদের ন্যূনতম বেতন ১৮ হাজার থেকে ২৬ হাজার করার দাবি উঠছিল। আপাতত ওই ন্যূনতম বেতনের পরিমাণ না বাড়ানোর সিদ্ধান্তকে প্রতিষ্ঠা দিতেই অর্থাৎ স্বল বেতনের কর্মীদের ক্ষোভ প্রশমন করতেই কেন্দ্র তাঁদের বেতন বৃদ্ধির জন্য অর্থ বরাদ্দ করার পথে হাঁটছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, প্রায় ১৯ মাস আগে সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ পাশ করানোর পর দিন, ২০১৬-র ৩০ জুন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করে বেতন বৃদ্ধির বিষয়টির দ্রুত নিষ্পত্তি করবেন। অর্থমন্ত্রক সূত্রে খবর, বেতন বৃদ্ধির জন্য অর্থ বরাদ্দ করে সেই প্রতিশ্রুতিই রক্ষা করতে চলেছেন জেটলি। কিন্তু সেই বরাদ্দ শুধু সীমাবদ্ধ থাকছে স্বল্প বেতনের কর্মীদের জন্যই। এ বারের বাজেটে ৭-১৮ হাজার টাকা মাসিক বেতনপ্রাপ্তদের জন্য ১৪.২৭ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধির জন্য অর্থ বরাদ্দ করা হতে পারে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধির উপর বকেয়া মেটানোর জন্য অতিরিক্ত অর্থ বরাদ্দের কোনো পরিকল্পনাই নেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন