নয়াদিল্লি: দু’ দিন আগেই মিজোরামে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছিলেন, মানুষ যা খেতে চান, সেটা খাওয়ার ব্যাপারে তাঁদের সম্পূর্ণ স্বাধীনতা আছে। কারও খাদ্যাভ্যাসের ওপর কোনো বিধিনিষেধ আরোপ করবে না কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার আরেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ওই একই কথা বললেন বটে, তবে একটা ‘কিন্তু’ জুড়ে দিলেন। তিনি কেন্দ্রীয় আইন ও বিচারমন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ। তিনি বলেন, মানুষের খাদ্যাভ্যাস কখনও নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। কিন্তু মনে রাখতে হবে, যে হেতু দেশের মানুষের একটা বড়ো অংশ গরুকে শ্রদ্ধা করে সে হেতু একটা ভারসাম্য আনার প্রয়োজন আছে।

গত তিন বছরে তাঁর মন্ত্রকের কাজকর্ম নিয়ে দিল্লিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন রবিশংকর। সেখানেই তিনি বলেন, “আমাদের মনে রাখা উচিত জনসাধারণের একটা বিরাট অংশ গরুকে শ্রদ্ধা করে, মান্য করে…আমরা মানুষের খাদ্যাভ্যাস নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না। কিন্তু একটা ভারসাম্য থাকা দরকার।”

সংবিধানের যে অংশে রাষ্ট্রের নির্দেশাত্মক নীতির উল্লেখ আছে সেই ৪৮ অনুচ্ছেদের প্রসঙ্গ তোলেন মন্ত্রী। তাতে বলা হয়েছে, গরু, বাছুর এবং অন্যান্য দুধেল ও ভারবাহী গবাদি পশুর হত্যা নিষিদ্ধ করতে এবং তাদের শাবকদের রক্ষা ও উন্নতিসাধনে রাষ্ট্র ব্যবস্থা নেবে।

হত্যার জন্য গবাদি পশু বিক্রি বন্ধে কেন্দ্রের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে যে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে সে প্রসঙ্গে রবিশংকর বলেন, কেন্দ্রীয় পরিবেশ ও বনমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন ইতিমধ্যেই বলেছেন বিজ্ঞপ্তি পুনর্বিবেচনা করতে কেন্দ্র প্রস্তুত।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন