ওয়েবডেস্ক: হেল্পলাইন নম্বরটা তৈরি হয়েছিল শিশুদের যৌন নির্যাতনের হাত থেকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য। পস্কো আইনের অধীনে পরিচালিত হওয়া এই হেল্পলাইন নম্বর যদিও বন্ধ রয়েছে সেপ্টেম্বর মাস থেকে। ন্যাশনাল কমিশন ফর প্রোটেকশন অব চাইল্ড রাইটস-এর তরফথেকে জানানো হয়েছে- নম্বরটা বন্ধ করে রাখা ছাড়া আপাতত কোনো উপায় তাঁদের হাতে নেই। কেন না, দিনের পর দিন লোকে এই নম্বরে ফোন করে যৌন পরিষেবা চাইছেন। কিন্তু কেন? সরকারি শিশু সুরক্ষা হেল্পলাইন নম্বর যৌন পরিষেবাও দেয়? ব্যাপারটা কী?

আরও পড়ুন: এ বার যৌন কেচ্ছায় বিদ্ধ হলেন লেখক চেতন ভগত, ক্ষমা চাইলেন প্রকাশ্যে

জানা গিয়েছে, ইন্টারনেটে সেক্স শব্দটি লিখে সার্চ করলেই এই নম্বরটা বেরিয়ে আসত। পরিণামে অনেক লোকই বাকিটুকু না দেখে এই নম্বরে ফোন করে যৌন পরিষেবা চাইতেন, বলছেন সরকারি এক আধিকারিক। এও জানিয়েছেন তিনি, উপায় না দেখে আপাতত ওই নম্বরটি বন্ধ রেখে তদন্ত শুরু হয়েছে। পাশাপাশি বিষয়টা নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার কথাও ভাবা হচ্ছে।

কেন না, নম্বরটা এত জায়গায় ব্যবহার করা হয়েছে যে চাইলেই সেটা বদলে নেওয়া সম্ভব নয়। আধিকারিকদের বক্তব্য, নম্বর বদল করলে তা আরও বিভ্রান্তির জন্ম দেবে। দেখা যাক, সমস্যার সমাধানে শেষ পর্যন্ত কী করে উঠতে পারেন তাঁরা!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন