Connect with us

দেশ

সংসদে সংবাদ মাধ্যমের উপর কেন্দ্রের ‘দমন’ নীতির প্রতিবাদে অধীর

Published

on

Adhir Ranjan Chowdhury

নয়াদিল্লি: লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী বুধবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সংবাদ মাধ্যমের উপর ‘দমন’ নীতির তীব্র প্রতিবাদ জানালেন। তিনি অভিযোগ করেন, সংবাদ মাধ্যমের উপর বিশেষ কৌশলের প্রয়োগ করা হয়েছে ভোটে জিততে।

অধিবেশনের জিরো আওয়ার-এ অধীরবাবু বক্তব্য রাখতে গিয়ে অভিযোগ করেন, ভোটের আগে কেন্দ্র সরকার অগণতান্ত্রিক এবং বেআইনি ভাবে সংবাদ মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়েছে। বিজেপির ভোটে জেতার কৌশল হিসাবেই এ ধরনের কাজ করা হয়েছে।

অধীরবাবুর এহেন বক্তব্যের পরই ট্রেজারি বেঞ্চ থেকে হইহট্টগোল শুরু করে দেওয়া হয়। লোকসভা অধ্যক্ষ ওম বিড়লা এর পরই পরবর্তী বক্তাকে বলার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু তুমুল হট্টগোলের মধ্যে কংগ্রেস অধীরবাবুকে বক্তব্য শেষ করার অনুমতির জন্য দাবি তুলতে শুরু করে।

তবে পরিস্থিতি অনুযায়ী, এর পর বলতে ওঠেন কংগ্রেসের মনীশ তিওয়ারি। তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশে প্রশ্ন করেন, সরকার কি ইরান থেকে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল কিনবে কি না, তা স্পষ্ট করে জানানো হোক।

নিজের বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে অধীরবাবুর বক্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, “যাঁরা হেরে গিয়েছেন তাঁদের আত্মসম্মানে আঘাত লেগেছে। তাঁরা দেশের মানুষকে অভিনন্দন জানান না। আত্মসমীক্ষা না করেই কংগ্রেস ইভিএমকে দোষারোপ করছে। ইভিএম চালু হওয়ার পর ১১৩টি বিধানসভা নির্বাচন হয়েছে। সব ভোটেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দল জিতে ক্ষমতায় এসেছে। কংগ্রসে পরাজয় মেনে নিতে পারছে না। এটাই গণতন্দ্রের পক্ষে স্বাস্থ্যকর লক্ষণ নয়। দেশ-গণতন্ত্র হেরে গিয়েছে বলা হচ্ছে। ওয়ানাড়ে, বারবরেলিতে কি দেশ বা গণতন্ত্র হেরে গিয়েছে”?

তাঁর দাবি, “বলা হচ্ছে সংবাদ মাধ্যমকে দমন করে জেতা হয়েছে। কর্নাটক, তামিলনাড়ুতেও কি সংবাদ মাধ্যমকে কিনে জেতা হয়েছে। বলা হচ্ছে ২ হাজার টাকার বিনিময়ে কৃষকদের ভোট কেনা হয়েছে। এ ভাবে দেশের ১৫ কোটি কৃষককে অপমান করা হচ্ছে”।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দেশ

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক মজবুত গাঁথুনির উপরে দাঁড়িয়ে, বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান

অনুষ্ঠান শেষে গান্ধীজির আশ্রম প্রাঙ্গণে দুটি গাছের চারা রোপণ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ভারতীয় হাইকমিশনার।

Published

on

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাশ।

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক মজবুত গাঁথুনির উপরে দাঁড়িয়ে আছে। ভবিষ্যতেও এই সম্পর্ক অটুট থাকবে। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারতের (India) সহযোগিতার কথা বাংলাদেশের (Bangladesh) মানুষ কোনো দিন ভুলে যাবে না। এ কথা বলেছেন বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (Home Minister) আসাদুজ্জামান খান কামাল (Asaduzzaman Khan Kamal)।

আসাদুজ্জামান খানের আমন্ত্রণে বুধবার ঢাকার দোহার উপজেলায় মালিকান্দা এলাকায় তাঁর বাড়িতে যান ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাশ (Riva ganguly Das)। সেখানে সাক্ষাৎকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এ সব কথা বলেন। ভারতীয় হাইকমিশনার পরে গান্ধীজির আশ্রম পরিদর্শনে যান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ভারতীয় হাইকমিশনার যখন আমার সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ করতে চাইলেন, তখন আমি তাঁকে গান্ধীজির আশ্রম পরিদর্শনের জন্য আমন্ত্রণ জানাই। এতে তিনি রাজি হন এবং এখানে আসেন।

সাক্ষাৎকালে ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক নিয়ে রিভা গাঙ্গুলি দাশ বলেন, দু’ দেশের সম্পর্ক অটুট রয়েছে এবং ভবিষ্যতে এই সম্পর্ক আরও সুদূঢ় হবে। তিনি বলেন, “আমি চলে যাচ্ছি ঠিকই, তবে বাংলাদেশকে খুব মিস করব।” অনুষ্ঠান শেষে গান্ধীজির আশ্রম প্রাঙ্গণে দুটি গাছের চারা রোপণ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ভারতীয় হাইকমিশনার।

উল্লেখ্য, কংগ্রেস নেতা ড. প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষের (দেশভাগের পরে পশ্চিমবঙ্গের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী) আমন্ত্রণে মহাত্মা গান্ধী দোহারের (Dohar) আশ্রমে দু’ বার এসেছিলেন। প্রথম আসেন ১৯৩৭ সালে। তখন প্রফুল্লচন্দ্রের দোহারের বাড়িতে ৭ দিন অবস্থান করেন। এর পর ১৯৪৩ সালে এসে এখানে দু’ সপ্তাহ ছিলেন মহাত্মা গান্ধী। 

বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ভারতীয় হাইকমিশনারের সাক্ষাতের সময় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সিনিয়র সচিব মো. মোস্তফা কামাল উদ্দিন, পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ, উপ-মহাপরিদর্শক হাবিবুর রহমান, ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ সর্দার, স্বেচ্ছাসেবক লিগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নির্মলরঞ্জন গুহ, দোহার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন,  দোহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এফ এম ফিরোজ মাহমুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন

অর্থনীতিতে নতুন হাতছানি বাংলাদেশ-ভারত পণ্যবাহী রেল চলাচল

Continue Reading

দেশ

বিনামূল্যে এলপিজি সিলিন্ডার খুঁজছেন? মাত্র এক সপ্তাহ বাকি! প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় কী ভাবে পাবেন, জেনে নিন

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই প্রকল্পে আবেদন জানানো যাবে।

Published

on

LPG
এলপিজি সিলিন্ডার। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: আপনি কি এলপিজি সংযোগ নিতে চাইছেন? তা হলে একেবারে নিখরচায় এই সুযোগটির জন্য চেষ্টা করে দেখতে পারেন। প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনা বা পিএমইউওয়াই-এর আওতায় এই আবেদন জানানো যেতে পারে।

তবে স্কিমটি সীমিত সময়ের জন্য পাওয়া যাচ্ছে। সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই প্রকল্পে আবেদন জানানো যাবে। ফলে হাতে সময় থাকতেই চেষ্টা করা ভালো। বলে রাখা ভালো, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে, এপ্রিলে মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তা সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল।

এই প্রকল্পটি পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের সহযোগিতায় পরিচালিত হচ্ছে, যা মূলত মহিলাদের জন্য। এই প্রকল্পের মাধ্যমে দরিদ্রদের জন্য নিখরচায় রান্নার গ্যাস সংযোগ দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে কেন্দ্র। বিপিএল পরিবারভুক্ত মহিলারা উজ্জ্বলা যোজনায় আবেদন করতে পারেন।

কী ভাবে আবেদন জানাতে হবে?

সহজ কয়েকটি পদক্ষেপেই নাম নথিভুক্ত করা যাবে।

১. প্রথমে যেতে হবে প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার ওয়েবসাইট pmujjwalayojana.com-এ।

২. প্রথমে যে পাতাটি খুলবে, সেখানে ‘ডাউনলোড ফরম’ অপশনটি ক্লিক করে ফরমটি ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে।

৩. ফরমটি পূরণ করে কাছের কোনো গ্যাস এজেন্সিতে তা জমা করতে হবে।

৪. ফরমের সঙ্গে প্রয়োজনীয় সমস্ত নথি দিতে হবে।

৫. ফরম এবং নথিগুলি যাচাইয়ের পর যোগ্য হিসেবে বিবেচিত হলে সংযোগ পাওয়া যাবে।

প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনা

পিএমইউওয়াই প্রথম উত্তরপ্রদেশের বালিয়ায় চালু হয় ২০১৬ সালে। প্রকল্পের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশের ৭১৯টি জেলায় ৮ কোটির বেশি এলপিজি সংযোগ দেওয়া হয়েছে।

নিরাপদ জ্বালানি সরবরাহ করে নারী এবং শিশুদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিতে এই প্রকল্প চালু হয়। একাংশের মহিলাকে জ্বালানি সংগ্রহের জন্য ঝুঁকি নিতে হয়। সেই সমস্যা মেটানোর পাশাপাশি তাঁদের স্বাস্থ্যসুরক্ষার সঙ্গে কোনো রকমের আপস ঘোচাতেই এই প্রকল্পটি ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

Continue Reading

দেশ

হু-র পরামর্শের থেকেও ছ’গুণ বেশি নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে ভারতে: স্বাস্থ্যমন্ত্রক

হু বলেছিল কত, ভারতে হচ্ছে কত?

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: ভারতে কোভিড-১৯ শনাক্তকরণে নমুনা পরীক্ষার হার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (HWO)-র নির্দেশিত সংখ্যার থেকে অনেকটাই বেশি বলে বুধবার জানাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

এ দিন স্বাস্থ্যমন্ত্রক বলে, হু পরামর্শ দিয়েছিল, প্রতি এক হাজার জন পিছু দৈনিক .১৪টি অথবা প্রতি ১০ লক্ষে ১৪০টি নমুনা পরীক্ষা করাতে হবে। ভারতে এখন প্রতি ১০ লক্ষ নাগরিক পিছু দৈনিক ৮৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করানো হচ্ছে। যা হু-র পরামর্শের থেকেও প্রায় ছ’গুণ।

ভারতে এখনও পর্যন্ত ৬.৬ কোটির বেশি নমুনা পরীক্ষা করানো হয়েছে। যার ফলে ১০ লক্ষ জনসংখ্যা প্রতি নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৮ হাজার ২৮টি। অন্য দিকে দেশ জুড়ে পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার মিলেছে ৮.২৫ শতাংশ।

উল্লেখ্য, প্রতি দিন যে সংখ্যক মানুষের পরীক্ষা হচ্ছে, তার মধ্যে যত শতাংশের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, সেটাকে বলা হচ্ছে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার। ১৪টি রাজ্যে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার জাতীয় গড়ের তুলনায় কম বলে বুধবার জানায় কেন্দ্র।

মন্ত্রকের বিবৃততে বলা হয়েছে, বর্তমানে দৈনিক ১২ লক্ষ নমুনা পরীক্ষার ক্ষমতা অর্জন করেছে ভারত। ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৬ কোটি ৬২ লক্ষ ৭৯ হাজার ৪৬২টি। মঙ্গলবার নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৯ লক্ষ ৫৩ হাজার ৬৮৩টি।

নজরে ১০টি রাজ্য

বুধবার সকালে প্রকাশিত মন্ত্রকের রিপোর্টে বলা হয়, শেষ ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সংক্রামিতের সংখ্যা ৮৩ হাজার ৩৪৭। এর মধ্যে দেশের ১০টি রাজ্যেই মোট আক্রান্তের ৭৪ শতাংশকে শনাক্ত করা হয়েছে। রাজ্যগুলির মধ্যে রয়েছে মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, ওড়িশা, কেরল, দিল্লি, পশ্চিমবঙ্গ এবং ছত্তীসগঢ়।

অন্য দিকে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৮৫ জনের। এর মধ্যে ১০টি রাজ্যেই ৮৩ শতাংশ মৃত্যুর ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে। রাজ্যগুলি হল মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, পঞ্জাব, পশ্চিমবঙ্গ, অন্ধ্রপ্রদেশ, দিল্লি, হরিয়ানা এবং ছত্তীসগঢ়ে।

নমুনা পরীক্ষায় ওঠানামা

তবে গত সপ্তাহের বুধবারের পর থেকে ক্রমশ নেমে চলা নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা সপ্তাহের শেষ দিকে ফের বাড়লেও এ দিন তা আবার কমে গিয়েছে। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে নমুনা পরীক্ষা হ্রাস পাওয়ায় নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যাতেও অবনমন ধরা পড়ছে বলে একাংশের দাবি।

স্বাস্থ্য এবং পরিবারকল্যাণ মন্ত্রক জানায়, সোমবার ২৪ ঘণ্টায় ৯ লক্ষ ৩৩ হাজার ১৮৫টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ দিন তা বেড়ে হয়েছে ৯ লক্ষ ৫৩ হাজার। যদিও দৈনিক নমুনা পরীক্ষা এখনও ১০ লক্ষের নীচেই রয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: বুধবারের পর থেকে দেশব্যাপী নমুনা পরীক্ষায় ক্রমশ অবনমন

Continue Reading
Advertisement
bangladesh foreign minister
বাংলাদেশ1 hour ago

সৌদিতে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট দিতে বাংলাদেশকে চাপ

ক্রিকেট1 hour ago

বুমরাহ-বোল্টের দাপটে বিধ্বস্ত কেকেআর, লজ্জার হার দিয়ে আইপিএল যাত্রা শুরু

দেশ3 hours ago

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক মজবুত গাঁথুনির উপরে দাঁড়িয়ে, বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান

রাজ্য5 hours ago

দৈনিক সংক্রমণ, মৃতের সংখ্যা প্রায় অপরিবর্তিত, সার্বিক ভাবে আশাপ্রদ রাজ্যের করোনা-পরিস্থিতি

কলকাতা5 hours ago

কলকাতার সিংহভাগ অভিভাবক চাইছেন না এখনই স্কুল খুলুক: অনলাইন সমীক্ষা

Currency
রাজ্য6 hours ago

রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ মেটাতে ফের সময়সীমা বেঁধে দিল স্যাট

LPG
দেশ7 hours ago

বিনামূল্যে এলপিজি সিলিন্ডার খুঁজছেন? মাত্র এক সপ্তাহ বাকি! প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় কী ভাবে পাবেন, জেনে নিন

দঃ ২৪ পরগনা7 hours ago

সুন্দরবনে ম্যানগ্রোভ রোপণে এ বার পরিবেশ-বান্ধব ‘জিও-জুট’ পদ্ধতি

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা4 days ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 week ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

নজরে