কাশ্মীরের কুলগামে সিআরপিএফ বাস লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলা, চলছে জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি

0
চলছে যৌথ অভিযান। প্রতীকী ছবি

জম্মু: দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগামে সিআরপিএফের গাড়ি লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলা। সৌভাগ্যক্রমে এই হামলায় কেউ হতাহত হয়নি। হামলার পর পরই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় জঙ্গিরা। তাদের খোঁজে যৌথ তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে নিরাপত্তা বাহিনী ও পুলিশ।

ঘটনায় প্রকাশ, দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম জেলার বরাজলু এলাকার মধ্য দিয়ে যাওয়া সিআরপিএফ বাসে হঠাৎ গ্রেনেড নিক্ষেপ করে জঙ্গিরা। একজন ঊর্ধ্বতন পুলিশ আধিকারিক জানান, সিআরপিএফ জওয়ানদের নিয়ে যাচ্ছিল বাসটি। সেটাকে লক্ষ্য করেই একটি গ্রেনেড নিক্ষেপ করে জঙ্গিরা। বাসে সিআরপিএফ-এর ১৮তম ব্যাটালিয়নের জওয়ানরা ছিলেন। সৌভাগ্যক্রমে বাসের কাছে মাটিতে পড়ে গ্রেনেডটি বিস্ফোরিত হয়। যে কারণে, ক্ষয়ক্ষতি ঘটেনি।

বিস্ফোরণের শব্দ শুনে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় নিরাপত্তা বাহিনী ও পুলিশ। তবে গ্রেনেড হামলার পর সেখান থেকে জঙ্গিরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। তাদের খোঁজে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী এলাকায় যৌথ অভিযান চালাচ্ছে। প্রতিটি গাড়িতে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তল্লাশি করা হচ্ছে।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, নিরাপত্তা বাহিনী এবং পুলিশের লাগাতার অভিযানে এমনিতেই আতংকে রয়েছে জঙ্গিরা। এরই মধ্যে উপত্যকায় বিচ্ছিন্ন ভাবে সন্ত্রাসবাদী হামলার ঘটনা প্রকাশ্যে আসছে। আসলে সীমান্তের ওপারে বসে থাকা মাথারা এ দেশের নিরাপত্তা বাহিনী এবং অন্য়ান্যকে টার্গেট করার জন্য জঙ্গিদের উপর চাপ সৃষ্টি করছে।

জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিংহ সাম্প্রতিক অতীতে স্পষ্ট ভাবে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন জঙ্গিদের। তিনি বলেছিলেন, তারা যেন রক্তপাত ছেড়ে আত্মসমর্পণ করে, তা না হলে তাদের পরিণতি উন্মত্ত পশুর মতোই হবে।

আরও পড়তে পারেন: 

ফেরালেন সনিয়া গান্ধীর প্রস্তাব, কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছেন না প্রশান্ত কিশোর

হাঁসখালি কাণ্ডে নয়া মোড়! মূল অভিযুক্তের বাবা, তৃণমূল নেতা সমরেন্দু গয়ালিকে গ্রেফতার করল সিবিআই

দখিণা হাওয়ার জোর বাড়ায় গরমের দাপট একটু কমল কলকাতায়, রবিবার থেকে স্বস্তির কালবৈশাখী

টুইটার পকেটে পুরেছেন ইলন মাস্ক! চাকরি থাকবে তো সিইও পরাগ আগরওয়ালের?

টুইটারে ‘ছুঁচ’ হয়ে ঢুকে মালিক হয়ে বেরোলেন ইলন মাস্ক

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন