cow tourism gujarat

ওয়েবডেস্ক: গরুকে মানুষের মধ্যে জনপ্রিয় করে তুলতে, গরুর মাহাত্ম্য বোঝানোর জন্য গরু কেন্দ্রিক পর্যটন প্রকল্প চালু হল গুজরাতে। এই প্রকল্পটি শুরু করেছে গুজরাত গৌসেবা আয়োগ। গরুকে কী ভাবে লালন পালন করা হয়, গোবর এবং গোমূত্র থেকে কী ভাবে বিভিন্ন পণ্য তৈরি হয়, এই সব যারা দেখতে চায়, তাদের জন্য দু’দিনের একটি পর্যটন প্যাকেজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এমনই জানিয়েছে সংবাদসংস্থা পিটিআই।

এই দু’দিনের প্যাকেজে রাজ্যের প্রধান গোশালা এবং গরুর চারণভূমিতে নিয়ে যাওয়া হবে। গৌসেবা আয়োগের চেয়ারপার্সন বল্লভ কাথিরিয়া বলেন, “বাড়িতে গরু রাখলে কী ধরনের আর্থিক লাভ হবে, সেটা মানুষকে বোঝানোর জন্যই এই পর্যটন প্রকল্প।” তিনি আরও বলেন, “গোবর এবং গোমূত্রকে কাজে লাগিয়ে বায়োগ্যাস এবং ওষুধপত্র তৈরি হয়, সাধারণ মানুষকে এটাই দেখানো হবে।”

কাথিরিয়ার মতে, গোবর থেকে বায়োগ্যাস, ধূপকাঠি এবং সার তৈরি করা যায় অন্য দিকে গোমূত্র থেকে ওষুধ, জৈব ফিনাইল এবং সাবান তৈরি করা যায়।

আনন্দের কাছে ধর্মজ গ্রামটিকে এই প্যাকেজের একটি গন্তব্যস্থল হিসেবে রাখা হয়েছে। এখানকার চারণভূমিকেই পর্যটকদের কাছে তুলে ধরা হবে। এই পর্যটন প্রকল্পের পাশাপাশি কাথিরিয়ার দাবি, খুব দ্রুতই রাজ্যের সব জেল এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে একটা করে গোশালা তৈরি করা হবে।

ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কেন্দ্রের শাসক বিজেপির কাছে অন্যতম চিন্তার বিষয় হল গরু। এই নিরীহ প্রাণীটিকে কী ভাবে রাজনীতির শিরোনামে রাখা যায়, সেটাই যেন একমাত্র লক্ষ্যবস্তু। গত বছর গরুর অভয়ারণ্য তৈরির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, রাজস্থানের এক মন্ত্রী বলেছিলেন গরুই একমাত্র পশু যে নাকি অক্সিজেন ছাড়েও। এ রকম চলতে থাকলে, শীঘ্রই যে গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করার দাবি উঠে যাবে সেটা বলাই বাহুল্য।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here