চলতি বছরে কোভিডের চেয়েও যক্ষায় মৃত্যু বেশি গুজরাতে

এ বছর জুন থেকে মে মাসের মধ্যে সে রাজ্যে যক্ষায় মৃত্যু হয়েছে ২,৬৭৫ জনের। ওই সময়কালের মধ্যে কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন ৮২৫ জন।

0

নয়াদিল্লি: চলতি বছরে গুজরাতে মৃত্যুর সংখ্যায় কোভিডকেও ছাপিয়ে গেলে যক্ষা (Tuberculosis)। এ বছর জুন থেকে মে মাসের মধ্যে সে রাজ্যে যক্ষায় মৃত্যু হয়েছে ২,৬৭৫ জনের।

ওই সময়কালের মধ্যে কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন ৮২৫ জন। সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-র তথ্য অনুযায়ী দেশে যক্ষা রোগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৮ হাজার জন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্যে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যাও উল্লেখযোগ্য ভাবে বেড়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১,১২৮ জন।

amazon

গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিডে আক্রান্ত হয়ে আমদাবাদে তিন জন মারা গিয়েছেন। শনিবার পর্যন্ত দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ৯০২ জনের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪০০জন। সুস্থতার হার ৯৮.৬৩ শতাংশ।

লাইভ সায়েন্স

দেশে ২০২০ সালে যক্ষায় আক্রান্ত ১৮.০৫ লক্ষ

সম্প্রতি লোকসভায় কেন্দ্রের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ২০২০ সালের মধ্যে যক্ষায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ লক্ষ পাঁচ হাজার জন। ২০২১ পর্যন্ত যক্ষা দূরীকরণ কর্মসূচির আওতায় ২১ লক্ষ ৩৫ হাজার জন।

২০২২-এর জানুয়ারি থেকে মে মাসের মধ্যে গুজরাতে যক্ষায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮,৭১৮ জন। মৃত্যুর হার চার শতাংশ। স্বাস্থ্য দফতরের তথ্য অনুযায়ী গুজরাতে প্রতি মাসে ১৩ হাজার জন যক্ষায় আক্রান্ত হন।

শীর্ষে উত্তরপ্রদেশ

তবে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মে মাসে যক্ষায় মৃত্যুর সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। এই সময়কালের মধ্যে সে রাজ্যে মারা গিয়েছেন ৬,৮৯৬ জন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সে রাজ্যে ২৮৪৫ জন মারা গিয়েছেন যক্ষায়। এর পরই তৃতীয় স্থানে রয়েছে গুজরাত।

ইউসিএল

২০১৮ থেকে মে ২০২২-এ আক্রান্ত ৬ লক্ষেরও বেশি

২০১৮ থেকে ২০২২-এর মে মাস পর্যন্ত মোট ৬ লক্ষ ৪৭ হাজার জন দেশে যক্ষায় আক্রান্ত হয়েছেন।

কী ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য

যক্ষা পরিস্থিতি নিয়ে আমদাবাদ পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগ সম্প্রতি একটি বৈঠক করে। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে পুরসভা পরিচালিত ৯০টি স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং ১১টি কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে যক্ষার প্রাথমিক পরীক্ষা হবে।

এ ছাড়া ছাড়া পুরসভার অন্তর্গত সব স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে ২ কোটি টাকা মূল্যের যক্ষা-সহ একাধিক রোগ নির্ণয়কারী মেশিন বসানো হবে। আমদাবাদ পুরসভার স্বাস্থ্য ও কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান ভারত প্যাটেল সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-কে জানিয়েছেন, ‘‘এই মেশিনে জ্বর, ডেঙ্গি, টাইফয়েড, চিকুনগুগুনিয়ার মতো রোগ নির্ণয় করা যাবে।’’

অন্যান্য খবর: 

টাকা কার? পার্থ দায় ঝাড়তেই বিস্ফোরক অভিযোগ শুভেন্দুর

রহস্য আরও ঘনীভূত! ঝাড়খণ্ডের আটক ৩ বিধায়কের সঙ্গে এ বার গুয়াহাটি যোগ

‘সময় এলেই বুঝবেন…আমার কোনো টাকা নেই’, বিস্ফোরক মন্তব্য পার্থর

দেশ, বিদেশ, খেলা, বিনোদনের সব খবরের আপডেট পেতে যান khaboronline.com

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন