Hardik patel
ফাইল ছবি

কলকাতা: তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সম্মুখ-সাক্ষাতে কলকাতায় আসছেন গুজরাতের পাতিদার আন্দোলনের নেতা হার্দিক পটেল। সব কিছু ঠিকঠাক চললে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি তিনি আসতে চলছেন বলে জানা গিয়েছে নবান্ন সূত্রে।

সাম্প্রতিক গুজরাত নির্বাচনের পরই তৃণমূলের রাজ্যসভা সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন দাবি করেছিলেন, ‘আমি মোটেই অবাক হব না, যদি সারা দেশ থেকে তরুণ নেতৃত্ব মমতার অভিজ্ঞতা এবং নির্দেশ নিতে তাঁর কাছে আসেন। কারণ ২০১৯-এর জন্য মমতাই সব থেকে যোগ্য এবং মানানসই নেত্রী।’ তিনি যে গুজরাতে বিজেপি-বিরোধী মুখ হিসাবে উঠে আসা অল্পেশ ঠাকুর, জিগনেশ মেবানি, হার্দিক পটেল এবং উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের কথা বোঝাতেই এমন মন্তব্য করেছিলেন, পরে তাও পরিষ্কার করে দেন। স্বাভাবিক ভাবেই সেই দিনের অপেক্ষাতেই ছিল রাজনৈতিক মহল।

মমতা সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে হার্দিক অতীতে প্রশংসার খামতি রাখেননি। তিনি একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘আমার সঙ্গে দিদির ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে। দিদি মাটির মানুষ। আমাকে নিয়মিত পরামর্শও দেন। ইন্দিরা গান্ধীর পর আমার চোখে উনিই ইদানীং কালের প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেত্রী।’

তবে যাই হোক, বিজেপি হার্দিকের কলকাতা-সফর নিয়ে ততটা বিচলিত নয়। রাজ্যের এক প্রথম সারির বিজেপি নেতা বলেন, ‘যে কেউ আসতে পারেন। কিন্তু এক জন সাধারণ মানুষ যখন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য মাথা খুঁড়েও সুযোগ পান না তখন জাতিগত রাজনীতির এক নেতাকে এত তোয়াজ করার কী আছে? মনে হয় না অতিথির সঙ্গে কোনো প্রশাসনিক পরিকল্পনা নিয়ে বৈঠক হতে চলেছে। রাজনৈতিক আলোচনার জন্য নিজের দলীয় কার্যালয়কেই বেছে নেওয়া যেতে পারত।’

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন