মুম্বইয়ের বিখ্যাত হাজি আলি দরগায় মহিলাদের পূর্ণ প্রবেশাধিকার দিল বম্বে হাইকোর্ট। তবে এই রায় আপাতত কার্যকর হচ্ছে না। কারণ এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানাবে দরগার ট্রাস্ট। সে কারণে আগামী ছ’সপ্তাহ এই রায় প্রয়োগ স্থগিত থাকবে বলে জানা গিয়েছে।

১৫শ শতকের এই দরগায় মহিলাদের প্রবেশাধিকার বন্ধ করে দেওয়া হয় ২০১২ সালের মার্চ থেকে জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ে। দরগায় আবার প্রবেশাধিকার চেয়ে আদালতে জনস্বার্থ মামলা করে ‘ভারতীয় মহিলা মুসলিম আন্দোলন’ নামে একটি সংগঠন। সেই মামলার রায়ে বম্বে হাইকোর্ট জানিয়েছে, দরগার ট্রাস্টের জারি করা নিষেধাজ্ঞা সংবিধানবিরোধী। পুরুষদের মতো মহিলাদেরও ওই দরগার গর্ভগৃহে প্রবেশাধিকার দিতে হবে এবং তাঁদের নিরাপত্তার দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ট্রাস্টকেই নিতে হবে।

আদালতের রায়ের পক্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবীস দরগায় প্রবেশের ক্ষেত্রে সমানাধিকারের পক্ষেই সওয়াল করেছেন।

রায়ে হাইকোর্ট জানিয়েছে, ভারতীয় সংবিধানের ১৪ (সাম্যের অধিকার), ১৫ (ধর্ম, বর্ণ, জাতি এবং লিঙ্গের নিরিখে বৈষম্য নিষিদ্ধ) এবং ২১ (ব্যক্তি স্বাধীনতার অধিকার) অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করা হচ্ছে।

এই রায়ে খুশি নয় হাজি আলি দরগা ট্রাস্ট। ট্রাস্টের আইনজীবী শোয়েব মেনন বলেন, সংবিধানের ২৬ অনুচ্ছেদ কোনও ধর্মীয় সংগঠনকে তার নিজের মতো করে ধর্মীয় রীতিনীতি পালনের অধিকার দিয়েছে এবং অন্য কোনও ব্যক্তি বা সংগঠনের হস্তক্ষেপ নিষিদ্ধ করেছে। ট্রাস্টের পক্ষে হাজি রাফাত জানিয়েছেন, এই রায়ের বিরুদ্ধে তাঁরা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here