হার্দিক পটেল। ছবি ইন্ডিয়া টুডে-র সৌজন্যে।

ওয়েবডেস্ক: তিন বছর আগে গুজরাতের বিশনগরে দাঙ্গা-ভাঙচুরে জড়িত থাকার অভিযোগে দু’বছরের জেল হল পাতিদার অমানত আন্দোলনের নেতা হার্দিক পটেলের।

বুধবার তাঁকে এই সাজা শুনিয়েছে বিশনগরের একটি আদালত। পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকার জরিমানাও হয়েছে তাঁর। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৫ সালে বিশনগরে স্থানীয় বিজেপি বিধায়কের অফিসের সামনে ভাঙচুরে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি। ঘটনাস্থলে থাকা অপর এক পাতিদার নেতা লালজি পটেলেরও একই শাস্তি হয়েছে।

আরও পড়ুন গোমাংস ভক্ষণকারী রোয়ান্ডাকে নরেন্দ্র মোদীর ২০০টি গোরুদানে টুইটারে হাসির রোল

২০১৫ থেকেই উত্থান হয়েছে হার্দিকের। এই ঘটনা থেকেই হার্দিকের পরিচিতি। তার পর ক্রমশ নিজের প্রতাপ বাড়িয়েছেন তিনি। গত বছর বিধানসভা নির্বাচনের সময়ে বিজেপি শিবিরে থরহরিকম্পও ধরিয়ে দিয়েছিলেন হার্দিক। তাঁর ডাকে সাড়া দিয়ে বিজেপিকে একেবারে ক্ষমতাচ্যুত না করতে পারলেও আসন কমে গিয়েছে শাসক দলের।

এই মুহূর্তে হার্দিকের কোনো বক্তব্য পাওয়া না গেলেও এই শাস্তির মধ্যেই তিনি যে বিজেপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলবেন তা এক প্রকার নিশ্চিত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here