modi in maan ki baat

নয়াদিল্লি: সমাজের প্রতিটি শ্রেণির মানুষের মধ্যে সংহতি স্থাপনে তাঁর ‘মন কি বাত’ ব্যাপক ভাবে সাহায্য করেছে। সাধারণ মানুষের কাছ থেকে যে বিপুল পরিমাণ সাড়া তিনি পেয়েছেন, তাতে তাঁর সরকার খুবই উপকৃত হয়েছে। রবিবার আকাশবাণী থেকে প্রচারিত ‘মন কি বাত’-এ এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

উল্লেখ্য, এ দিন ‘মন কি বাত’-এর তিন বছর পূর্তি হল। মোদী বলেন, “আচার্য বিনোবা ভাবে বলতেন, ‘অ-সরকারি হল অসরকারি’। আমি ‘মন কি বাত’-এ ভাবেজির এই কথাটা সব সময় মাথায় রাখার চেষ্টা করেছি।” ভাবেজি যা বলতেন তার মোটামুটি অর্থ হল, “সরকারের আওতা থেকে কোনো কিছু বাইরে রাখলে তা ফলদায়ক হয়।” “‘মন কি বাত’-এর মাধ্যমে আমি এই রাষ্ট্রের জনগণকে সব কিছুর কেন্দ্রে রাখার চেষ্টা করেছি” – বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারতের শক্তি দেখানোর অন্যতম কার্যকর মাধ্যম হল ‘মন কি বাত’। গত তিন বছর ধরে ‘মন কি বাত’-এ প্রধানমন্ত্রী তাঁর প্রিয় বিষয়গুলি নিয়ে তাঁর বক্তব্য রেখেছেন – স্বচ্ছতা অভিযান, নারী, উন্নয়ন, জনগণের যোগদান ইত্যাদি।

নবরাত্রি উপলক্ষে ভারতবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নরেন্দ্র মোদী ‘মন কি বাত’-এর ৩৬তম সংস্করণে স্বামী বিবেকানন্দ, মহাত্মা গান্ধী, সর্দার বল্লভভাই পটেল, দীনদয়াল উপাধ্যায়, নানাজি দেশমুখ প্রমুখের অবদানের উল্লেখ করেন। ভারতে অনুষ্ঠিতব্য অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ টেনে এনে প্রধানমন্ত্রী আশা করেন, এর ফলে সকলের মধ্যে খেলাধূলা নিয়ে উৎসাহ জাগবে।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন