মেঘ ভাঙা বর্ষণে বিপর্যস্ত উত্তরাখণ্ড, মৃত ১৭

0

খবর অনলাইন: প্রাকৃতিক বিপর্যয় লেগেই রয়েছে উত্তরাখণ্ডে। দাবানলের পর এখন মেঘ ভাঙা বর্ষণ ফিরিয়ে আনল তিন বছর আগের সেই ভয়াবহ স্মৃতি। রাজ্যের কুমায়ুন আর গঢ়বাল অঞ্চলে পৃথক দু’টি মেঘ ভাঙা বর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

প্রথম ঘটনাটি ঘটেছে কুমায়ুনের পিথোরাগড় জেলায়। শুক্রবার সকালের মেঘ ভাঙা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জেলার ডিডিহাট মহকুমার অন্তর্গত সিঙ্ঘালি, পাট্টাকোট, ওগলা আর থল। ৫০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে এখানে মাত্র দু’ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ১০০ মিমির ওপর। বৃষ্টির ফলে প্রচুর ঘরবাড়ি ভেঙে পড়েছে, নেমেচে ধস। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত আট জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে, বহু মানুষ এখনও ধ্বংসস্তূপের তলায় আটকে আছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ আর রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দল যৌথ ভাবে উদ্ধারকাজে নেমেছে। তবে বৃষ্টির পরে নিখোঁজ থাকা ২৫ জনের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন বিপর্যয় মোকাবিলা দলের অফিসার আর এস রানা।

অন্য ঘটনাটি ঘটেছে চামোলি জেলার গোপেশ্বরে। এখানেও প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টির ফলে ভেঙে পড়েছে ঘরবাড়ি। এখনও পর্যন্ত ৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে। এ দিকে মন্দাকিনী নদীর জল বাড়তে থাকায় প্রশাসনের তরফে বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বৃষ্টি ও ধসের ফলে হরিদ্বার-বদরিনাথ সড়ক বন্ধ রাখা হয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের মতে আগামী ৭২ ঘণ্টা ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হবে রাজ্য জুড়ে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন