jubilation after the supreme court verdict
রায়ের খবরে খুশি। ছবি রাজীব বসু।

ওয়েবডেস্ক: আরএসএসের সঙ্গে জামাত-এ-ইসলামি হিন্দের মিল কোথায়? অনেকেই এই প্রশ্ন শুনে অবাক হয়ে যাবেন। ভাববেন, হিন্দু কট্টরপন্থী সংগঠন এবং মুসলিম কট্টরপন্থী সংগঠনের মধ্যে মিল কী ভাবে থাকবে। সত্যিই, দু’টি সংগঠন দুই মেরুতে চলে। আরএসএসের হিন্দু রাষ্ট্র তৈরি করার চেষ্টা কোনো ভাবেই মেনে নেবে না জামাত।

কিন্তু এ সবের মধ্যেও একটা ব্যাপার এই দুই ধর্মীয় সংগঠনকে কাছে এনে দিয়েছে। তাদের সঙ্গে যোগ হয়েছে কিছু খ্রিস্টান সংগঠনও। সুপ্রিম কোর্টের সমকামিতা রায়ের একযোগে বিরোধিতা করেছে এই তিন ধর্মের কট্টরপন্থী সংগঠনগুলি।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট সমকামিতা অপরাধ নয় বলে ঘোষণা করেছে। এই রায়ে যে তারা খুশি নয়, সেটা স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছে আরএসএস। সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘোষণা পর আরএসএসের তরফে সংগঠনের অখিল ভারতীয় প্রচার প্রমুখ অরুণ কুমার বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের মতোই আমরা এই সমকামিতাকে অপরাধ হিসাবে গণ্য করি না। কিন্তু আমরা প্রকৃতিগত অংসগতির দরুণ সমলিঙ্গের বিবাহকে সমর্থন করি না। ঐতিহ্যগত কারণেই ভারতীয় সংস্কৃতি এই ধরনের সম্পর্ককে মেনে নেয় না।”

অন্য দিকে জামাতও জানিয়েছে এই রায়ে তারা হতাশ। জামাতের তরফ থেকে বলে হয়েছে, “ছেলে-ছেলে, মেয়ে-মেয়ে সম্পর্ককে আইনি বৈধতা দেওয়ার ফলে পারিবারিক ব্যবস্থা নষ্ট হয়ে যাবে।” সমকামিতার হাত থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্য দেশবাসীর কাছে আবেদন করেছেন জামাতের সাধারণ সম্পাদক।

আরও পড়ুন কয়েকশো মহিলাকে যৌন নির্যাতনকারী স্বামী বিবেকানন্দ সরস্বতী আদতে কে?

অন্য দিকে এই রায়ের বিরোধিতা করেছে আপস্টলিক আলায়ান্স অফ চার্চেস এবং উৎকল খ্রিস্টান কাউন্সিলের মতো কিছু সংগঠনও।

এক দিকে যখন এই রায়কে সমর্থন করেছে অধিকাংশ রাজনৈতিক দল তখন সমকামিতা রায় নিয়ে নীরব থাকারই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি। যদিও বিজেপিরই কিছু নেতা আগ বাড়িয়ে কিছু বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। এঁদেরই মধ্যে একজন সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তিনি বলেন, এর ফলে এইচআইভি এডসের প্রবণতা বাড়বে। এমনকি দেশের নিরাপত্তা এর ফলে বিঘ্নিত হতে পারে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, “এগুলো সব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আমদানি। ওরা এখানে গে-বার খুলতে চায়। এর ফলে আমাদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবে। এটা হিন্দুত্ববিরোধী।”

তবে কংগ্রেস থেকে বামপন্থীরা সবাই এই রায় সমর্থন করেছে। শশী তারুর থেকে রনদীপ সুরজেওয়ালা, সবাই টুইটারে এই রায়ের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। অন্য দিকে বিবৃতি দিয়ে সিপিআইএম জানিয়েছে, “সমকামীদের নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যে ঐতিহাসিক রায় দিয়েছে তাতে আমরা পূর্ণ সমর্থন জানাচ্ছি। সমকামিতা অপরাধ নয় বলে বারবার দাবি করে আসছিল সিপিআইএম।”

আরও পড়ুন সুপ্রিম কোর্টের মতোই আরএসএস মনে করে, সমকামিতা অপরাধ নয় তবে প্রকৃতিগত প্রতিবন্ধকতা রয়েছে

এই রায়ের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে সিপিআই (এম-এল)ও। দলের সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর ভট্টাচার্য বলেন, “দিনের পর দিন যারা সমকামীদের অধিকারের জন্য আন্দোলন করেছেন, আজকের এই জয় তাদের জন্যই হয়েছে।” এই রায়ে সমর্থন জানিয়ে টুইট করেছেন ডিএমকে নেত্রী কানিমোঝি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন