ওয়েবডেস্ক: যতই ‘উন্নয়ন’-এর কথা বলুন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী বিএস ইয়েদুরাপ্পা এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ভোটারদের কাছে টানতে যে মেরুকরণই একমাত্র ভরসা, আবার বুঝিয়ে দিল বিজেপি।

সোমবারই কংগ্রেসের বিরুদ্ধে মুসলিম তোষণের অভিযোগ করে রাজ্যের বিজেপি সাংসদ শোভা করন্দলাজে টুইট করে বলেন, হিন্দুদের উচিত শুধুমাত্র বিজেপিকে ভোট দেওয়া।

bjp leader tweet

বিতর্কিত এই টুইটটি পরে মুছে দেন শোভা। এর কিছুক্ষণ আগে ইয়েদুরাপ্পা বলেন, শুধুমাত্র উন্নয়নই কর্নাটকে লক্ষ্য হবে বিজেপির। এক দিকে উন্নয়ন, অন্য দিকে মেরুকরণ। এই দুমুখো নীতি নিয়েই কর্নাটকের ভোট ময়দানে নেমেছে বিজেপি।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, খুব ভেবেচিন্তেই শোভাকে দিয়ে এই টুইটটি করিয়েছে রাজ্যের বিজেপি নেতৃত্ব। অন্য দিকে ভোটারদের মধ্যে মেরুকরুণের বীজ বুনে দেওয়ার জন্য গত দশ দিন ধরে রাজ্যে জোরদার প্রচার চালাচ্ছেন বিজেপির ‘হিন্দুত্ব’ ব্রিগেডের দুই প্রধান মুখ যোগী আদিত্যনাথ এবং অনন্ত হেগড়ে।

প্রথম দিকে হিন্দুত্বের জিগির তুলেছিলেন যোগী, কিন্তু উত্তরপ্রদেশের উপনির্বাচনে মুখ পোড়ার পর কর্নাটকে দু’মাস পা বাড়াননি তিনি। কিন্তু সেই দু’মাস আড়ালে থেকে ফের নেমে পড়েছেন ভোট ময়দানে। অন্য দিকে হেগড়েও সিদ্দারামাইয়া সরকারকে বারবার ‘হিন্দু-বিরোধী’ বলে বর্ণনা করতে চাইছেন।

কংগ্রেসের অভিযোগ, বিজেপি যে প্রার্থী তালিকা তৈরি করেছে তাতে দুর্নীতিতে নাম জড়ানো এমন আটজন নেতা রয়েছেন। অন্য কোনো উপায় না দেখে ভোটারদের পাশে পাওয়ার জন্য এখন ‘হিন্দুত্বের’ ওপরেই ভরসা করছে তারা। তবে কর্নাটক প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি দীনেশ গুন্ডরাও বলেন, “ভোট যত এগিয়ে আসছে তত সাম্প্রদায়িক তাস খেলার চেষ্টা করছে বিজেপি। কিন্তু কর্নাটক উত্তরপ্রদেশ নয়। এখানে সাম্প্রদায়িক শক্তিরা পাত্তা পাবে না।”

কয়েক জন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞের মতে, এ বার শুরু থেকেই রাহুল গান্ধী অন্য রকম প্রচার করছেন। অনেকটা যে রকম গুজরাতের বেলায় করেছিলেন। রাজ্যের কুড়িটা বড়ো মন্দির দর্শন হয়ে গিয়েছে তাঁর। এ ছাড়াও লিঙ্গায়তদের অনেক মঠেও ভ্রমণ করেছেন তিনি। এই সবের মধ্যেই প্রবল চাপে থাকা বিজেপি এখন আরও বেশি করে হিন্দুত্বের তাস খেলার চেষ্টা করছে।

এ দিকে এই দু’জনের থেকেই সমদূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করছে জেডিএস। কংগ্রেস এবং বিজেপি দু’টি দলকেই সাম্প্রদায়িক বলে আখ্যা দিয়েছে তারা।

তবে বিজেপির এই হিন্দুত্ব রাজনীতি আদতে কতটা কাজে দেয় সেটা তো জানা যাবে আগামী ১৫ মে।

 

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন