modi xinping meet in china

উহান (চিন): একই দিনে কূটনৈতিক দিক থেকে বিশ্বের দু’টি অঞ্চলে দু’টি ঐতিহাসিক বৈঠক শুরু হয়ে গেল। এক দিকে যখন দক্ষিণ কোরিয়ায় মুন-জা-ইনের সঙ্গে দেখা করলেন উত্তরের শাসক কিম, ঠিক তখনই ঐতিহাসিক বৈঠকে চিনের প্রেসিডেন্ট ঝি জিনপিং-এর সঙ্গে বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রথম দিনের বৈঠকে ভারত এবং চিনের মধ্যে মেলবন্ধনের কথা তুলে ধরলেন মোদী। চিনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে প্রথম দিনের বৈঠকে মোদী বলেন, “ভারত এবং চিন, দু’টি দেশের গোড়াপত্তনই হয়েছে নদীকে কেন্দ্র করে। মহেঞ্জোদারো এবং হরাপ্পা থেকে ভারতের গোড়াপত্তন।”

চিনের ‘থ্রি গর্জেস ড্যামের’ কথা উল্লেখ করে সে দেশের কাঠামোগত নৈপুণ্যের কথাও বলেন মোদী। তাঁর কথায়, “আমি যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলাম, তখন এই জলাধার দেখতে এসেছিলাম। আপনারা যে নৈপুণ্য, দক্ষতা এবং দ্রুততায় এই জলাধার তৈরি করেছিলেন তাতে আমি খুব অনুপ্রাণিত হয়েছিলাম।”

শুক্রবার স্থানীয় সময় দুপুর ১টা নাগাদ বৈঠকের জন্য উহানের প্রাদেশিক মিউজিয়ামে পৌঁছোন মোদী। সেখানে পৌঁছোতেই হাততালিতে ফেটে পরে সভাস্থল। এই বৈঠকের পরে শুক্রবারই চিনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে নৌকাবিহারে বেরোনোর কথা মোদীর।

গত বছরের ডোকলাম অচলাবস্থা কাটিয়ে এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠককে অনেকাংশেই ঐতিহাসিক আখ্যা দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার চিন রওনা হওয়ার আগে মোদী বলেছিলেন, “দুই দেশের মধ্যে আন্তরিক আলোচনা হবে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here