honeypreet insan

ওয়েবডেস্ক : বাবা রাম রহিমের ডেরায় অভিযান চালিয়ে মাত্র ১২হাজার টাকা নগদ খুঁজে পেয়েছিল হরিয়ানা পুলিশ। ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, ৭ সেপ্টেম্বর পুলিশ ডেরায় তিনদিনের অভিযান চালানোর আগেই নগদ টাকা এবং দামি জিনিসপত্র নিয়ে সরে পড়েছিলেন হানিপ্রীত।

কী ভাবে?

সূত্র ইন্ডিয়া টুডেকে জানিয়েছে, ২৫ থেকে ২৮ তারিখের মধ্যে ডেরায় রাত কাটান হানিপ্রীত। তাকে গাড়ির ব্যবস্থা করে দেন ডেরার চেয়ারপার্সন বিপাসনা ইনসান। সেই গাড়ি চড়ে ২৫ আগস্ট রাত দুটো নাগাদ ডেরার হেডকোয়াটার্সে ঢোকেন হানিপ্রীত।

সিরসায় হানিপ্রীত বির্তকিত গুফাতেও ঢোকেন। হাইটেক এই গুফার দরজা খুলত তিনজনের আঙুলের ছাপে- ডেরা প্রধান রাম রহিম, তার বিশ্বস্ত সহকারী ধরম সিং এবং পালিত কন্যা হানিপ্রীত।

হানিপ্রীত সংক্রান্ত সব খবর পড়ুন

তখন রাম রহিম এবং ধরম সিং দু’জনেই জেলে। বাইরে ছিলেন একমাত্র হানিপ্রীত। তিনি তার আঙুলের ছাপ ব্যবহার ‘গুফা’য় প্রবেশ করেন এবং সেখান থেকে নগদ টাকা এবং দামি জিনিসপত্র সরিয়ে নেন।

সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, এক রাজনীতিবিদ হানিপ্রীতকে ডেরা হেডকোয়াটার্সে পৌঁছনোর জন্য নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছিলেন। তারপর মাস খানেক পুলিশের চোখে ধূলো দিয়ে তিনি ঘুরে বেড়ান।

পুলিশ অনুমান এই পালিয়ে বেড়ানোর সময় দিল্লির এক নামী প্রোমাটার হানিপ্রীতকে সাহায্য করেছিলেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here