বিরোধী সাংসদদের সাথে দেখা না করায় হুরিয়তের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। সোমবার শ্রীনগরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজনাথ স্পষ্ট বলেন, গণতন্ত্র, কাশ্মীরিত্ব আর মনুষ্যত্বে বিশ্বাস করে না হুরিয়ত।

কাশ্মীরে শান্তি ফেরানোর প্রয়োজনীয়তা প্রসঙ্গে রাজনাথ বলেন, “কাশ্মীরে যে পরিস্থিতির শীঘ্র পরিবর্তন দরকার, এ ব্যাপারে আমরা সবাই একমত”। তিনি আরও বলেন, শ্রীনগরে প্রায় ৩০০ জনের সাথে দেখা করেছেন সর্বদলীয় প্রতিনিধিদল।

কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ, এই কথাটি মনে করিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ দিন বলেন, “কাশ্মীর ভারতের ছিল, ভারতেরই থাকবে, এই ব্যাপারে কোনও দ্বিমত নেই”। এর পরই হুরিয়তদের তোপ দাগেন তিনি। তাঁর কথায়, “কেউ যখন তাঁদের (বিচ্ছিন্নতাবাদীরা) সাথে কথা বলতে গেল আর তাঁরা দেখা করলেন না, তখন এটা বলতেই হয় যে তাঁরা ‘কাশ্মীরিয়ত’ (কাশ্মীরিত্ব), ‘ইন্সানিয়ত’ (মনুষ্যত্বও) আর ‘জামহুরিয়ত’-এ (গণতন্ত্র) বিশ্বাস করেন না। আমি আগেও বলেছি, আবারও বলছি, কাশ্মীরে শান্তি ফেরাতে ইচ্ছুক সকলের সাথে আমরা কথা বলতে প্রস্তুত। সবার জন্য আলোচনার দরজাই শুধু নয়, জানলা, ভেন্টিলেশন খোলা”।

ছররা গুলির বিকল্প প্রসঙ্গে রাজনাথ বলেন, দু’মাসের মধ্যে নতুন ‘পাভা’ গুলি আসবে। ‘পাভা’তে লঙ্কাগুঁড়ো থাকার ফলে সাময়িক ভাবে লোকের চোখ ধাঁধিয়ে যাবে কিন্তু অন্ধ হয়ে যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই।

কেন্দ্রের তরফ থেকে ৩০ সদস্যের সর্বদলীয় প্রতিনিধিদল রবিবার পৌঁছন শ্রীনগরে। সোমবার দুপুরে তাঁরা শ্রীনগর থেকে জম্মু আসেন। জম্মুতে নাগরিক মঞ্চের সঙ্গে দেখা করেন এই প্রতিনিধিদল।     

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here