আলাদা হওয়ার পরেও স্ত্রী এবং বাচ্চাদের রক্ষণাবেক্ষণের খরচ দিতে হবে স্বামীকে: এলাহাবাদ হাইকোর্ট

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: খোরপোষ সংক্রান্ত একটি মামলায় গুরুত্বপূর্ণ রায় দিল এলাহাবাদ হাইকোর্ট (Allahabad High Court)। আলাদা (separation) হওয়ার পরেও স্ত্রী এবং বাচ্চাদের রক্ষণাবেক্ষণ খরচ দেওয়া উচিত বলে জানাল হাইকোর্ট।

এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ে বলা হয়েছে, পুরো পরিবারের রক্ষণাবেক্ষণ করা একজন ব্যক্তির আইনী, নৈতিক, সামাজিক দায়বদ্ধতা এবং যে কোনো ব্যক্তির প্রতিশ্রুতি পূরণ করাই উচিত।

ঝাঁসি ফ্যামিলি কোর্টে দায়ের হওয়া একটি আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট এই নির্দেশ দেয়। এই মামলায় বাবা-মায়ের সঙ্গে বসবাসকারী স্ত্রীকে খোরপোষ (alimony) দিতে অস্বীকার করেছিলেন স্বামী।

ঝাঁসি ফ্যামিলি কোর্ট থেকে মামলাটি হাইকোর্টে স্থানান্তর করে স্বামী নিজের অবস্থানে অনড় ছিলেন। যদিও স্বামীর আরজি খারিজ করে হাইকোর্ট বলে, “ভারতীয় সমাজে বিবাহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বাবা-মায়েরা স্বপ্ন দেখেন যে, তাঁদের মেয়েটি নিজের শ্বশুরবাড়ির কাছ থেকে অনেক ভালোবাসা পাবে”।

কিন্তু যখন কোনো মেয়েকে লাঞ্ছনা এবং নির্যাতন করা হয়, তখন বাবা-মায়ের স্বপ্ন ছিন্নভিন্ন হয়ে য়ায়। আদালত বলেন, স্ত্রী যখন নিজের বাবা-মাকে ছেড়ে শ্বশুরবাড়িতে আসে, তখন তার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করা স্বামীর নৈতিক এবং আইনি দায়িত্ব।

ঝাঁসি ফ্যামিলি কোর্টের রায় অপরিবর্তিত রেখে হাইকোর্ট স্বামীকে তাঁর স্ত্রী ও কন্যাকে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রতি মাসে ৩,৫০০ টাকা দেওয়ার নির্দেশকেই বৈধতা দিয়েছে।

ঝাঁসি ফ্যামিলি কোর্টের নির্দেশকে বাতিল করতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন স্বামী। কিন্তু হাইকোর্ট ওই আবেদন খারিজ করে দেয়। হাইকোর্টের বিচারপতি সৌরভশ্যাম শামসেরি এই নির্দেশ দেন।

মামলার নেপথ্য

২০১৫ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর আবেদনকারী স্বামী অশ্বিনী যাদবের সঙ্গে বিয়ে হয় জ্যোতি যাদবের। ওই বিয়েতে মোট ১৫ লক্ষ টাকা খরচ হয় বলে দাবি করা হয়। পরে জ্যোতি অভিযোগ করেন, তিনি শ্বশুরবাড়িতে নির্যাতনের শিকার। পণের জন্য তাঁর উপর অত্যাচার চলছে বলে অভিযোগ করা হয়।

এর পর ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারি নিজের বাবা-মায়ের কাছে ফিরে যান জ্যোতি। কিন্তু শ্বশুরবাড়ির লোকজন একটি চারচাকা গাড়িতে দাবি অনড় থাকেন। শেষমেশ শ্বশুরবাড়ির লোকেদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন জ্যোতি।

ঝাঁসি ফ্যামিলি কোর্ট ৯Jhansi family court) অশ্বিনীকে নিজের স্ত্রীকে ২,৫০০ টাকা এবং মেয়েকে ১,০০০ টাকার মাসিক রক্ষণাবেক্ষণ খরচ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। হাইকোর্টেও সেই নির্দেশ বহাল রইল।

আরও পড়তে পারেন: শুধুমাত্র বিয়ের জন্য ধর্ম পরিবর্তন মেনে নেওয়া যায় না: এলাহাবাদ হাইকোর্ট

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন