১২৭ বার হাই স্পিডে গাড়ি চালানোর খেসারত, জরিমানা দিতে হচ্ছে ১.৮২ লক্ষ টাকা

0

ওয়েবডেস্ক: এক বা দু’বার হলে না হয় মেনে নেওয়া যেত! কিন্তু ১২৭ বার মুখের কথা নয়! পথ নিরাপত্তার জন্য গাড়ি চালানোর প্রতি ঘণ্টায় যে গতিবেগ মেপে দিয়েছে হায়দরাবাদ ট্রাফিক পুলিশ, প্রতি বারেই ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিটি তা অমান্য করেছেন। ফলে, জরিমানার পরিমাণটাও এসে ঠেকেছে বেশ উল্লেখযোগ্য একটা টাকার অঙ্কে।

হায়দরাবাদ ট্রাফিক পুলিশের সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ব্যক্তিটির গাড়ির নম্বর টিএস ০৯ ইআর ২৯৫৭। বেশির ভাগ সময়েই গাড়িটিকে হাই স্পিডে সনাক্ত করা হয়েছে শহরের বহির্ভাগে অবস্থিত আউটার রিং রোডে। এ ছাড়া নরসিংগি, হর্ষগুড়া, হিমায়তনগর – হায়দরাবাদের এই সব এলাকাতেও এই গাড়িটিকে হাই স্পিডে ঘুরে বেড়াতে দেখা গিয়েছে। ২০১৭ সালের ৪ এপ্রিল থেকে ২০১৮ সালের ১০ মার্চ পর্যন্ত ট্রাফিক পুলিশের সিসিটিভি ফুটেজে ১২৭ বার এই ঘটনার ফুটেজ ধরা দিয়েছে।

খবর বলছে, কোনো গাড়ি এ ভাবে বেঁধে দেওয়া গতিবেগ উল্লঙ্ঘন করলে তাকে জরিমানার জন্য একটি ১৪৩৫ টাকার চালান দেওয়া হয়। এ ক্ষেত্রে ১২৭টি চালান জমে জমেই জরিমানার অঙ্কটা পৌঁছে গিয়েছে প্রায় ২ লক্ষ টাকার ঘরে!

“আমরা প্রতি বারেই চালান এসএমএস-এর মাধ্যমে ওই ব্যক্তিটিকে পাঠিয়েছি। কিন্তু যে রেজিস্টার্ড নম্বরটি আমরা পেয়েছি, সেটা যদি ওই গাড়িচালক বর্তমানে ব্যবহার না করেন, তবে তাঁর জরিমানার কথা জানতে পারার কথা নয়। যা-ই হোক, আমরা সব টোল বুথে গাড়িটার নম্বর দিয়ে রেখেছি। গাড়িচালককে ধরা হবেই। আর তার পর ওর কাছ থেকে জরিমানার টাকা আমরা আদায় করেই ছাড়ব”, জানিয়েছেন আৰজিআই এয়ারপোর্ট ট্রাফিক পুলিশ স্টেশনের ইন্সপেকটর ডি ভি রঙ্গা রেড্ডি।

যদিও বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে বিতর্ক। পথ নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ বিনোদ কুমার কানুমালা দাবি তুলেছেন, “ট্রাফিক পুলিশের আরও সতর্ক হওয়া উচিত! একটা লোক একই কাজ ১২৭ বার করে ফেলেছে আর তাকে সনাক্তও করা যাচ্ছে না! আর এ রকম লোকজন নিশ্চয়ই শহরে আরও রয়েছে যারা পথ নিরাপত্তার নিয়ম ভাঙে!”

অন্য দিকে, ইমরান জেডি নামের এক ব্যক্তি, যিনি প্রায়ই আউটার রিং রোড দিয়ে যাতায়াত করেন, বিষয়টিকে দেখছেন একটু অন্য ভাবে। “আমার মনে হয়, ব্যক্তিটি কোনো সংস্থার গাড়ির ভাড়া করা ড্রাইভার! এদের অধিকাংশরই ট্রাফিক নিয়ম জানা থাকে না। ভাগ্য ভালো যে কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। তবে এ বার যে সব সংস্থা এমন ভাড়ায় ড্রাইভার নিয়োগ করে, তাদের সতর্ক হওয়া উচিত”, জানিয়েছেন তিনি।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন