২৪ আগস্ট ২০০০। প্রায় আড়াইশো মিলিমিটারের বৃষ্টিতে সে দিন ভেসে গিয়েছিল হায়দরাবাদ। ১৬ বছর পর, সেই স্মৃতি ফিরে এসেছে তেলঙ্গানার রাজধানীতে।

বুধবার সকাল থেকে তুমুল বৃষ্টির কবলে পড়েছে হায়দরাবাদ। আবহাওয়া দফতরের তথ্য অনুযায়ী সকাল সাড়ে ৮টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত শহরে বৃষ্টি হয়েছে ৭১ মিমি। কিন্তু বৃষ্টি বিকেল পর্যন্ত এক নাগাড়ে চলেছে। বৃষ্টির প্রভাবে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে শহরের একাধিক এলাকা।

বৃষ্টিতে ফুলে ফেঁপে উঠেছে হায়দরাবাদ আর সেকেন্দরাবাদ শহরের প্রাণভোমরা হুসেনসাগর হ্রদ। চরম সীমায় পৌঁছে গেছে হ্রদের জলধারণের ক্ষমতা। বিশেষজ্ঞদের মতে বৃষ্টি চলতে থাকলে উপচে যাবে জল। প্রয়োজনে নিরাপদ জায়গায় সরে যেতে হবে, এই মর্মে হায়দরাবাদের পৌর আধিকারিকরা হ্রদ-সংলগ্ন অঞ্চলে বসবাসকারী সমস্ত মানুষকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। ৫১৩.৪১ মিটারের বিপদসীমার দাগে জল পৌঁছে যাওয়ায় হ্রদের একটি স্লুইস গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। ১৬ বছর আগে শেষ বার স্লুইস গেট খোলা হয়েছিল এই হ্রদের। এর ফলে হ্রদের গা ঘেঁসে যাওয়া ট্যাঙ্ক বান্ড রোড এখন সম্পূর্ণ প্লাবিত।

বৃষ্টির ফলে সাত জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে ঘূর্ণাবর্তের ফলে গোটা অন্ধ্রপ্রদেশ আর তেলঙ্গানায় জোর বৃষ্টি হচ্ছে। ৪৮ ঘণ্টা পর উন্নতি হতে পারে আবহাওয়া।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here